২৭শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং | ১৪ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৪৬

দেশে রুটির চেয়ে গাঁজা বেশি: এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে হতাশাজনক দাবি করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, এই হতাশার কারণেই তরুণরা ব্যাপকভাবে মাদকে ঝুঁকে পড়ছে। আর এই পরিস্থিতিতে জাতীয় পার্টিই একমাত্র আশা বলে মনে করেন গণঅভ্যুত্থানে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা হারানো সেনা শাসক। মঙ্গলবার রাজধানীতে দলের এক যৌথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব দাবি করেন জাপা চেয়ারম্যান। এরশাদ বলেন, ‘দেখলাম দোকানে দোকানে মাদক, ইয়াবা, গাঁজা সবই পাওয়া যায়। রুটির চেয়ে গাঁজা বেশি পাওয়া যায়।’

এই পরিস্থিতির কারণ কী- এই প্রশ্ন তুলে নিজেই তার জবাব দেন এরশাদ। বলেন, ‘কোনো কাজ নাই। তারা হতাশাগ্রস্ত, বাপ-মায়ের বোঝা, সমাজের বোঝা, ছেলের সামনে কোনো ভবিষ্যত নাই। তখন সে মাদকের আশ্রয় নেয়। দারিদ্র্যের দুঃখ ভুলে যেতে চায়। একমাত্র উপায় হিসেবে মাদককে বেছে নেয়।’ দেশে শিক্ষিত যুবক-নারীর সংখ্যা কত এবং শিক্ষিত যুবকদের অবস্থা কী- সরকারের কাছে এই প্রশ্নেরও জবাব চান এরশাদ।

মধ্যম আয়ের দেশের সুবিধা কেবল ক্ষমতাসীন দল পাচ্ছে অভিযোগ করে এরশাদ বলেন, ‘প্রতিদিন ঢাকায় হাজার হাজার মানুষ আসে কাজের জন্য। কোনো কাজ নাই। মানুষ ফুটপাতে শুয়ে থাকে। আমাদের নাকি মধ্যম আয়ের দেশ। মধ্যম আয় শুধু আওয়ামী লীগের মধ্যে।’

নারীদের জন্য বাংলাদেশ অনিরাপদ হয়ে উঠেছে বলেও মনে করেন এরশাদ। বলেন, ‘কোনো মেয়েই আজকে নিরাপদ নয়। গ্রামেগঞ্জের বাবারা মেয়েকে ১৫ বছরের আগেই বিয়ে দিয়ে দেয়।’ ‘বাল্যবিবাহ বন্ধকরণসহ যত আইন করেন এটা বন্ধ করতে পারবেন না। কারণ এরা বড় হলেই বাবা-মার বিপদ। ধর্ষণের কথা প্রতিদিন তো শুনছেনই।’

সামনে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে যাচ্ছে বলে পূর্বাভাসও দেন এরশাদ। তবে এর মধ্যে জাতীয় পার্টি আরও শক্তিশালী হবে বলেও মনে করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

WordPress spam blocked by CleanTalk.