১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | রাত ২:৩১

রংপুর সিটি কপো: নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের প্রয়োজন নেই

রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি নাকচ করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা।তিনি বলেন, রসিক নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের প্রয়োজন নেই। নির্বাচনের পরিবেশ উৎসবমুখর আছে। নির্বাচন ভালো হবে, সুষ্ঠু হবে।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) রংপুরের বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, স্থানীয় প্রশাসন ও নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

রংপুর বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে এ মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সিইসি বলেন, নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে যা প্রয়োজন, সেটিই করা হবে। এ জন্য বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাব ও আনসার সদস্যদের সমন্বয়ে চারস্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে ২২ ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। শুক্রবার থেকে ৩৩ জনের নেতৃত্বে প্রতিটি ওয়ার্ডে ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবে।

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে বা টাকা ছড়ানোর বিষয় নজরে এলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান সিইসি। রসিক নির্বাচনে একটি ভোটকেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে বলে জানান নুরুল হুদা।তবে ভোটাররা চাইলে ইভিএম ব্যবহার করতে পারবেন এবং না চাইলে ব্যালট পেপারের মাধ্যমেই ভোট দিতে পারবেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মো. হাসান আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. হেলালুদ্দীন আহমেদ, রিটার্নিং কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র সরকার উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*