১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | রাত ২:৩৯

শাকিবের সেই দুই কারণের জবাব দিলেন অপু

অপুকে ডিভোর্স লেটার দিয়েছে শাকিব খান আর এ নিয়ে চলছে নানা আলোচনা। তবে এ ডিভোর্সের পেছনে দুটি কারণ উল্লেখ করেছেন ঢালিউড এ অভিনেতা। অপু বিশ্বাস তাদের একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়কে তালাবন্দি করে কলকাতায় ঘুরতে যান। এবং যেখানে তার সঙ্গে ছিল বয়ফ্রেন্ড। তবে বুধবার একটি জাতীয় দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিস্ময়সূচক কণ্ঠে নায়িকা বলেন, যে দুটি কারণ দেখিয়ে আমাকে ডিভোর্স লেটার পাঠানো হয়েছে সেসব সত্যিই আমার কাছে বোধগম্য নয়।

জয়কে তালাবন্দি করা সম্পর্কে অপু বিশ্বাস বলেন, আমার শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপ থাকায় আমি আব্রামকে রেখে যেতে বাধ্য হয়েছিলাম। যদিও জয়কে নিয়েই আমার ভারত যাওয়ার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু তাকে দেখাশোনার জন্য আমার বাসায় সেলিনা আক্তার (শেলী) নামে যে মেয়েটি থাকে তার ভারতীয় ভিসার মেয়াদ ছিল না। তাই বাধ্য হয়ে একদিনের জন্য আমি একাই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়ার জন্য ভারতে যাই। এবং ডাক্তার দেখানোর পরদিনই আবার ফিরে আসি।

ভারতে যাওয়ার আগে শাকিবের এক কাজিনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছিলেন জানিয়ে এই চিত্রনায়িকা বলেন, কিন্তু তিনি ওই সময় ব্যাংককে শাকিবের সঙ্গে ছিলেন। শারীরিক অবস্থা খারাপ না থাকলে আমি দ্রুত চলে যেতাম না। এটা ডিভোর্সের কোনো ইস্যু হতে পারে না। তাছাড়া একদিনের জন্য ভারত গেলেও আব্রামকে দেখাশুনা করার জন্য আমি বাসার কাজের মেয়েসহ আমার কাজিনকে রেখে গিয়েছিলাম।

বয়ফ্রেন্ড প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, কথিত বয়ফ্রেন্ড বলে নায়ক বাপ্পিকে ঘিরে আমাকে নিয়ে যে মন্তব্য করা হচ্ছে এটা শুনে আমি বিস্মিত হয়েছি। আমি চিকিৎসা করাতে ভারতে গিয়েছিলাম, কোনো বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে না। এটা কেন সাজানো হচ্ছে আমি জানি না। আর বাপ্পির কথা এখানে কিভাবে এলো। বাপ্পি তো আমার জুনিয়র। আমাকে দিদি ডেকে সে সবসময়ই সম্মান করে। বাংলাদেশ প্রতিদিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*