সর্ব শেষ খবর
১৮ই জানুয়ারি, ২০১৮ ইং | ৫ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:৩৪

ধর্মান্তরিত স্ত্রীর সঙ্গে মুসলমান স্বামীর থাকার অনুমতি আদালতের

ইসলামাবাদঃ ২১ বছর বয়সী ওই যুবতী জন্মসূত্রে হিন্দু৷ কিন্তু বিবাহের পর হয়ে যান মুসলিম৷ এদিন পাক আদালতে ওই যুবতী তার হিন্দু পরিবারে ফিরে যেতে অনীহা প্রকাশ করেন৷ সেই সঙ্গে আদালতকে জানান, কোন জোর জবরদস্তি নয় বরং স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন তিনি৷ তারপরই আদালত তাকে স্বামীর সঙ্গে থাকার অনুমতি দেয়৷
আনুশী নামে ওই হিন্দু যুবতী প্রথমে অবশ্য তার স্বামীর বিরুদ্ধে অপহরণ করে জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণে বাধ্য করার অভিযোগ এনেছিলেন৷ ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পরই তার নিকাহ হয়৷ দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনে এই খবর প্রকাশ করা হয়৷

এখন ওই যুবতীর নাম মারিয়া৷ ইসলামে ধমার্ন্তরিত হওয়ার পর থেকে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন তিনি ও তার স্বামী বিলাওল আলি ভুট্টো৷ নিরাপত্তা চেয়ে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন তারা৷ স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন তা প্রমাণ করতে এদিন আদালতে আরবিতে প্রার্থনা করে শোনান মারিয়া৷

অন্যদিকে মেয়েকে ফিরে পেতে আনুশীর পরিবার আদালতের দ্বারস্থ হন৷ এদিন আদালত মারিয়াকে তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেয়৷ কিন্তু তা প্রত্যাখান করে সে৷ পরে অবশ্য বিচারকের ব্যক্তিগত সচিবের উপস্থিতিতে পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন মারিয়া৷

মারিয়ার মা আদালতে মেয়েকে তাদের হাতে তুলে দেওয়ার আর্জি জানান৷ তিনি আদালতে আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন কিছুদিন পর মেয়েকে পরিত্যক্ত করে দেবে ভুট্টো৷ আদালত অবশ্য দু’পক্ষের বক্তব্য শোনার পর মারিয়ার পাশে এসে দাঁড়ায়৷ বিচারক শৌকত আজিজ সিদ্দিকি বলেন, মারিয়াকে ফের ইসলাম থেকে হিন্দু ধর্ম গ্রহণে বাধ্য করা হতে পারে৷ তাই তাকে তার পরিবারের হাতে তুলে না দেওয়া সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হল৷ এদিন বিচারপতি শৌকত আজিজ সিদ্দিকি স্থানীয় পুলিশকে তাদের নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*