সর্ব শেষ খবর
১৮ই জানুয়ারি, ২০১৮ ইং | ৫ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:৩১

ঈদের পর সারাদেশে বিক্ষোভ ঘোষণা হিন্দু মহাজোটের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ও সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করার কারণে তার কাছে সরকারের ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট। ক্ষমা না চাইলে ঈদের পর হিন্দু সম্প্রদায় সারাদেশে বিক্ষোভ করার হুঁশিয়ারি দিয়েছে।

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে হিন্দু মহাজোটের আয়োজনে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এমন হুঁশিয়ারি দেন।

লিখিত বক্তব্যে হিন্দু মাহাজোটের নেতৃবৃন্দ বলেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় দেয়ায় প্রধান বিচারপতি আজ সরকারের কাছে অপ্রিয় হয়ে গেছেন। এ কারণে সরকারের মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ তাকে (প্রধান বিচারপতি) নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করছেন। ফলে বিচারব্যবস্থা আস্থা হারিয়ে ফেলছে।

তারা বলেন, প্রধান বিচারপতি একজন ব্যক্তি নন; একটি প্রতিষ্ঠান। সরকার বিচার বিভাগের রায়ে অসন্তুষ্ট হলে রিভিউ করতে পারে। তাই বলে বিচার বিভাগকে বির্তকিত করতে পারে না। এটি নজরবিহীন কাজ। প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে এমন নোংরা আচরণে আগামীতে জঙ্গী, খুনি-সন্ত্রাসীরাও প্রেরণা নিয়ে বিচার ব্যবস্থাকে আক্রমণ করার সাহস পাবে। সরকারের মন্ত্রীদের দ্রুত প্রধান বিচারপতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত।

হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য জাতীয় সংসদে ৫০টি নির্ধারিত আসন সংরক্ষণ ও পৃথক নির্বাচন ব্যবস্থা পুনরায় প্রতিষ্ঠা, একটি সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা, সকল সম্প্রদায়ের সমঅধিকার ও সমমর্যাদা প্রতিষ্ঠা ও দুর্গাপূজায় ৩দিন সরকারি ছুটি ঘোষণা করার দাবি জানান তারা।

হিন্দু সম্প্রদায়ের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, প্রধাণ বিচারপতি একজন হিন্দু ধর্মের হওয়ায় তাকে নিয়ে সাম্প্রদায়িকতার প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। এতে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর নতুন করে দাঙ্গা-হাঙ্গামা হওয়ার উপক্রম সৃষ্টি হয়েছে। প্রধান বিচারপতির কাছে সরকারের মন্ত্রীদের ক্ষমা চাওয়া উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*