সংসদে অর্থমন্ত্রীকে শেখ সেলিম

কথা কম বলেন, একগুঁয়েমি ব্যবস্থা বন্ধ করেন

বিশেষ প্রতিবেদকঃ সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কড়া সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যরা। অর্থমন্ত্রীর একগুঁয়েমি বন্ধ করে কথা কম বলার পরামর্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম

আর দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউলআলম হানিফ প্রস্তাবিত বাজেটকে নির্বাচনবিরোধী হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।  আজ সোমবার দুপুরে সংসদে বাজেটের ওপর আলোচনায় তাঁরা এসব কথা বলেন

সংসদে ২০১৭১৮ অর্থ বছরের বাজেট পেশের পর থেকেই বিভিন্ন মহলের আলোচনা সমালোচনার তীর ছিল অর্থমন্ত্রীর দিকে। প্রস্তাবিত বাজেটের নানা বিষয় নিয়ে সংসদের বাইরের সমালোচনা এখন শোনা যাচ্ছে সংসদের ভেতরেই। খোদ ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্যরাই প্রস্তাবিত আবগারি শুল্ক ভ্যাটের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেন, ‘আপনি হলমার্ক কেলেংকারির সময় বলেছিলেন, হলমার্কের চার হাজার কোটি টাকা কোনো টাকা না। চার হাজার কোটি টাকা কোনো টাকা না, এক লাখ হয়ে গেল টাকা। সুতরাং আপনি অর্থমন্ত্রী, আপনার দায়িত্ব এই সংসদে বাজেট পেশ করা, সংসদে এই ৩৫০ জন সদস্য ঠিক করবে, জনগণের কল্যাণে কোনটা থাকবে কোনটা থাকবে না। এটা আপনি সিদ্ধান্ত নেবেন না। সুতরাং আপনার এই একগুঁয়েমি ব্যবস্থাটা বন্ধ করেন। কথা কম বলেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউলআলম হানিফ বলেন, ‘মাননীয় অর্থমন্ত্রী কী কারণে কার পরামর্শে এই বাজেটকে নির্বাচনমুখি না করে বরং অনেকটাই বলা যায় নির্বাচনবিরোধী বাজেটে পরিণত করেছেন। আজকে অর্থমন্ত্রী ব্যাংকে জমা টাকার ওপর যে আবগারি শুল্ক ধার্য করেছেন, কী কারণে কার স্বার্থে, কার পরামর্শে এটা করেছেনআমার বোধগম্য নয়। আমি গতকালকে পেপারে দেখলাম যে, বেসিক ব্যাংকের মূলধন ঘাটতির জন্য এক হাজার কোটি ওখানে দেওয়া হয়েছে, তাদের মূলধনের জন্য। আমার জিজ্ঞাসা মাননীয় স্পিকার কার টাকা আপনি দিচ্ছেন? কেন দিচ্ছেন? জাতি এটা জানতে চায়, কী কারণে? যে সকল অযোগ্যতা, দুর্নীতির কারণে তারা ব্যাংকের মূলধন লুটপাট করে খাবে। আর তার টাকা আমাকে দিতে হবে? আমরা ওই টাকা দিতে চাই না।

তা ছাড়া নৌকা ডুবে গেছে খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে শেখ সেলিম বলেন, আওয়ামী লীগ পালাবার রাজনীতি করে না। তিনি বলেন, ‘আপনি খালেদা জিয়া, আপনার ডোবার সময় হইছে। আপনি যদি বেশি নৌকো নিয়ে খেলা খেলতে চান তো এই ওই পানিতেই আপনার ডুবতে হবে। একেবারে চিরতরে ডুবতে হবে।

বর্তমান সরকারের অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে জানিয়ে শেখ সেলিম আরো বলেন, যতই হুংকার দেওয়া হোক না কেন অনির্বাচিত ব্যক্তি দিয়ে কোনো ধরনের সরকার হবে না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*