আ. লীগ নেতাদের নির্দেশে মহাসচিবের ওপর হামলা

বিশেষ প্রতিবেদকঃ আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের নির্দেশেই বিএনপির মহাসচিবসহ নেতাদের ওপর হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। গণতন্ত্রের সর্বশেষ অস্তিত্ব ছিন্নভিন্ন করে দিতেই এ হামলা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আজ সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন রিজভী।

রিজভী আরো বলেন, ‘আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি আওয়ামী সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের নির্দেশেই বিএনপি মহাসচিবসহ নেতৃবৃন্দের ওপর ন্যক্কারজনক হামলা চালানো হয়েছে। গুণ্ডামির এই নব সংস্করণ জনসমর্থন ছাড়া দুঃশাসন টিকিয়ে রাখারই ইঙ্গিতবহ। গণতন্ত্রের সর্বশেষ অস্তিত্বকে ছিন্নভিন্ন করে দেওয়ার জন্যই এটি একটি সহিংস আগ্রাসী পদক্ষেপ। এরা বিরোধী দলের মানবকল্যাণধর্মী, সমাজসেবামূলক কর্মসূচিকেও বানচাল করতে হিংস্র আক্রমণ চালায়।’

সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘রাজনৈতিক ভদ্রতার নিয়ম-কানুন মানা আওয়ামী লীগের ঐতিহ্যে নেই। আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস আর গুণ্ডামিকেই নিজেদের জীবনে, আচরণে, কর্মক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে। আওয়ামী-রাষ্ট্র সমালোচনা ও বিরোধী দলের গণতন্ত্রস্বীকৃত তৎপরতাকে স্তব্ধ করে দেওয়া বাধ্যতামূলক কর্মসূচি বলে মনে করে।’

রিজভী বলেন, ‘গণবিচ্ছিন্ন হওয়ার কারণে এক অজানা ভয় থেকে আওয়ামী লীগের মনস্তাত্ত্বিক আবহাওয়া বদলে গেছে। সেখানে পতনের আশঙ্কায় তারা উদভ্রান্ত গুণ্ডামিতে নেমে পড়েছে। এখন সবকিছু হারিয়ে আওয়ামী লীগ শেষ ভরসা হিসেবে গুণ্ডা রাজত্ব কায়েম করতে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে।’

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাঙামাটি যাওয়ার পথে রাঙ্গুনিয়ায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের গাড়িবহরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় গাড়ির ভাঙা কাচে মির্জা ফখরুল, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা আহত হন। সম্প্রতি পাহাড়ধসে সংশ্লিষ্ট এলাকার মানববিপর্যয়ে বিপন্ন এলাকা সরেজমিনে দেখতে ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতেই সেখানে যেতে চান বিএনপি নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*