সেনা কর্মকর্তার দাফন

পাহাড়ধসে উদ্ধারে গিয়ে নিহত ২ সেনা কর্মকর্তার দাফন

বিশেষ প্রতিবেদকঃ রাঙামাটির মানিকছড়িতে পাহাড়ধসের পর উদ্ধার কার্যক্রম চালানোর সময় নিহত দুই সেনা কর্মকর্তার দাফন আজ বৃহস্পতিবার বনানী সামরিক কবরস্থানে সামরিক মর্যাদায় সম্পন্ন হয়।

এ সময় সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) মেজর জেনারেল মো. নাজিম উদ্দীনসহ নিহতদের আত্মীয়স্বজন ও ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন বলে আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে।

যাদের দাফন করা হয় তাঁরা হলেন মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার মেজর মোহাম্মদ মাহফুজুল হক ও পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ক্যাপ্টেন মো. তানভীর সালাম শান্ত। এ ছাড়া স্বজনদের ইচ্ছানুযায়ী কর্পোরাল মোহাম্মদ আজিজুল হককে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা ও সৈনিক মো. শাহিন আলমকে বগুড়ার আদমদিঘী উপজেলার নিজ গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

আইএসপিআর জানিয়েছে, রাঙামাটির মানিকছড়িতে গত মঙ্গলবার ভোরে একটি পাহাড়ধসে মাটি ও গাছ পড়ে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি মহাসড়ক বন্ধ হয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে রাঙামাটি জোন সদরের নির্দেশে মানিকছড়ি আর্মি ক্যাম্প থেকে সেনাবাহিনীর একটি দল ওই সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করতে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে। উদ্ধার কার্যক্রম চলার সময় আনুমানিক বেলা ১১টায় উদ্ধার কার্যস্থলসংলগ্ন পাহাড়ের একটি বড় অংশ উদ্ধারকারী দলের ওপর ধসে পড়লে তাঁরা মূল সড়ক থেকে ৩০ ফুট নিচে পড়ে যান। পরে একই ক্যাম্প থেকে আরো একটি উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই সেনা কর্মকর্তাসহ চার সেনাসদস্যকে নিহত এবং ১০ জন সেনাসদস্যকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। এর মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) স্থানান্তর করা হয়। উদ্ধার কার্যক্রম চালানোর সময় ভূমি ধসে পড়ে সৈনিক মো. আজিজুর রহমান নিখোঁজ থাকেন। প্রচণ্ড বৃষ্টিতে উদ্ধার কার্যক্রম ব্যাহত হয়।

আজ সকালে আজিজুর রহমানের লাশ উদ্ধার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*