বায়ু পান

বায়ু পান করেই বাঁচুন

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধূতঃ দেহে অক্সিজেনের প্রয়োজন সর্বাধিক। আমরা খাদ্যের মাধ্যমে যে পরিমাণ অক্সিজেন গ্রহণ করি তা দেহের আংশিক প্রয়োজন মাত্র মেটাতে পারে। এইজন্য আমাদের শ্বাস গ্রহণ করতে হয় অতিরিক্ত অক্সিজেন সংগ্রহের জন্য। অক্সিজেন ছাড়া আগুণ জ্বলতে পারে না। আমাদের জঠরাগ্নিকেও জ্বালিয়ে রাখে এই অক্সিজেন।

শ্বাসের সাথে আমরা যে বিশুদ্ধ বায়ু গ্রহণ করি, ওই বায়ুতে শতকরা ২০ ভাগ থাকে অক্সিজেন। এই ২০ ভাগ অক্সিজেন থেকে ৪ ভাগ মাত্র আমাদের দেহ গ্রহণ করতে পারে। বাকী ১৬ ভাগ দেহ গ্রহণ করতে পারে না বলে প্রশ্বাসের সাথে দেহ থেকে বের হয়ে যায়। শ্বাস-বায়ু ও খাদ্য থেকে দেহ যতটুকু অক্সিজেন সংগ্রহ করে তা সমস্ত দেহের পুষ্টি বিধান করে, জঠরাগ্নিকে জ্বালিয়ে রাখে।

ফুসফুসের কোষে সঞ্চিত বায়ু থেকে লাল রক্তাণুগুলি অক্সিজেন গ্রহণ করে তা রক্তের সাথে মিশিয়ে দেয়। এই অক্সিজেন যুক্ত বিশুদ্ধ রক্তই স্নায়ু ও গ্রন্থিগুলিকে খাদ্য সরবরাহ করে, দেহের সর্বাঙ্গীণ পুষ্টি বিধান করে।

যোগশাস্ত্রে আছে- প্রাণই প্রাণের খাদ্য। তাই প্রাণায়াম দ্বারা এই প্রাণ সংগ্রহ করতে হবে। প্রাণায়াম অভ্যাসে ফুসফুস, হৃদযন্ত্র প্রভৃতি বায়ুগ্রন্থিগুলি সবল হয়, ফুসফুসের বায়ু ধারণ ক্ষমতা বেড়ে যায়। ফলে লাল-রক্তাণুগুলি বেশী পরিমাণে অক্সিজেন দেহের কাজে লাগাতে পারে ও রক্তকে অধিক সতেজ করে তুলতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*