সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ১০:০৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়া এখন আলোকিত জনপদ কালীগঞ্জ উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্টিত ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে রাজস্ব খাতের আওতায় মাছের পোনা অবমুক্ত ফরিদপুরে ডেঙ্গু রোগে ইমামের মৃত্যু বেনাপোল পৌর বিএনপি সভাপতি নাজিম নারীসহ গ্রেফতার বেগম জিয়ার দুর্নীতির গন্ধ ছড়াবে এবার বিদেশেও -তথ্যমন্ত্রী জনগণের চাহিদা পূরণে আন্তরিক হয়ে কাজ করুন -বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী একুশে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের রায় কার্যকরের দাবীতে মানববন্ধন সালথায় মাছের পোনা অবমুক্তকরণ মন্ত্রিপরিষদে সরকারি ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি “স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড” এর অনুমোদন

৮০০ বিজেপি কর্মীকে ছিনিয়ে নিল তৃণমূল

৮০০ বিজেপি কর্মীকে ছিনিয়ে নিল তৃণমূল

বিজেপির হাত থেকে পঞ্চায়েত ছিনিয়ে নিয়েছে তৃণমূল। গত কয়েকদিন আগে তৃণমূলের হাত পঞ্চায়েত ছিনিয়ে নিয়েছিল বিজেপি। অনুব্রতের কৌশলি চালে পঞ্চায়তে সদস্যদের ‘ঘর-বাপসি’ ঘটিয়ে সিউড়ির কোমা পঞ্চায়েত ছিনিয়ে নিয়েছে বিজেপি। এবার আরও একবার মাস্টারস্ট্রোক দিয়ে বিজেপিকে জোড় ধাক্কা দিল শাসকদল তৃণমূল।

বোলপুর ব্লকের সিঙ্গি গ্রাম পঞ্চায়েতে ৮০০ বিজেপি কর্মী যোগদান করলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। তৃণমূল নেতা সুদীপ্ত ঘোষের নেতৃত্বে এই সমস্ত কর্মীরা ফের একবার তৃণমূলে ফিরে আসেন। বোলপুরে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় সুদীপ্ত দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে বিজেপি কর্মীদের যোগদান করান। কিন্তু এর পিছনে যে রয়েছে অনুব্রত মন্ডলের কৌশলি চাল তা মেনে নিচ্ছেন অনেক পোর খাওয়া রাজনীতিবিদই।

গত কয়েকদিন ধরে একের পর এক ধাক্কা বিজেপির। বাবা-ছেলের মুখে ঝামা ঘষে হাতছাড়া হওয়া একের পর এক পুরসভা ছিনিয়ে নিয়েছে তৃণমূল। পর পর বিজেপির হাতছাড়া হয়েছে হালিশহর, কাঁচড়াপাড়া পুরসভা। যদিও মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশুর দাবি, আস্থা ভোটেই সমস্ত রাজনৈতিক সমীকরণ স্পষ্ট হয়ে যাবে। এরই মধ্যে গত কয়েকদিন আগেই খোদ নিজের গড়ে ম্যাজিক দেখিয়েছেন কেষ্ট।

প্রসঙ্গত, ৭ আসন নিয়ে কোমা গ্রাম পঞ্চায়েত। গত ৪ তারিখ সিউড়ির কোমা পঞ্চায়েতের প্রধান, উপপ্রধান সহ ৫ সদস্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন। তাঁদের হাতে বিজেপির পতাকা তুলে দিয়েছিলেন বিজেপির বীরভূম জেলা সভাপতি শ্যামাপ্রসাদ মন্ডল। খোদ অনুব্রত গড়ে বিজেপির শক্তি বৃদ্ধিতে যথেষ্ট চাপ বেড়েছিল তৃণমূলের। অনেকেই মুকুল-দিলীপের এহেন রণকৌশলকে মাস্টারস্ট্রোক হিসাবেই দেখেছিল। কিন্তু সময় ঘুরতে না ঘুরতেই সেই কেষ্টা গড়ে খেলা ঘোরায় শাসকদল তৃণমূল। প্রধান, উপপ্রধান সহ যে ৫ জন সদস্য বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন, তাঁরাই আবার তৃণমূলে যোগদান করেন। তৃণমূলের এহেন মাস্টারস্ট্রোকে রীতিমত ধাক্কা খেয়েছে শাসকদলকে।

অন্যদিকে লোকসভা ভোটের পর থেকে যেখানে দলে-দলে তৃণমূল নেতা-কর্মী যোগ দিতে শুরু করেন পদ্মশিবিরে। সেখানে কার্যত উলাট-পুরান ঘটালেন অনুব্রত মন্ডল।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit