সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:০৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
বুধহাটায় কেওড়া পার্কের উদ্বোধন করলেন ইউএনও কুড়িগ্রামে ধানক্ষেত থেকে রাজা মিয়ার মরদেহ উদ্ধার ঝিনাইদহে ট্রাক ও মাহেন্দ্র সংঘর্ষে ২ নারী নিহত, আহত-৮ আগৈলঝাড়া উপজেলা মহিলা আ.লীগের ২৩ ও আ.লীগের কাউন্সিল ২৯ অক্টোবর বগুড়ায় ‘বাংলাদেশে নারীর নিরাপদ অভিবাস’ শীর্ষক দিনবাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত খুলনা রেঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০১৯ কলকাতা মহাত্মা গান্ধী স্মৃতি পুরস্কার পেলেন নবকাম কলেজের অধ্যক্ষ ফরিদপুরে সাংবাদিক নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ঐক্যফ্রন্ট ‘বিগত যৌবনা’ -চট্টগ্রামে তথ্যমন্ত্রী নদী তীরের অবৈধ স্থাপনা অপসারণ কাজ চলমান থাকবে -নৌসচিব

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ পরামর্শক নিয়োগের চুক্তি স্বাক্ষর

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ পরামর্শক নিয়োগের চুক্তি স্বাক্ষর

ঢাকা, ২৭ আষাঢ় (১১ জুলাই) : সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরর উপস্থিতিতে আজ বনানীস্থ সেতু ভবনের সম্মেলন কক্ষে ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের নকশা রিভিউ এবং নির্মাণকাজ তদারকির জন্য পরামর্শক নিয়োগের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ এবং Tecnica Y Proyectos S.A, (TYPSA) Spain with JV DOHWA & DDC, Bangladesh এর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

তিনশত চার কোটি চৌদ্দ লাখ ঊনসত্তর হাজার চারশত নিরানব্বই টাকার চুক্তিপত্রে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের পক্ষে প্রধান প্রকৌশলী কাজী মোঃ ফেরদাউস ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে নেতৃত্বদানকারী প্রতিষ্ঠান TYPSA-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক Antonio Rodriguez Castellanos চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের মন্ত্রী জানান, এয়ারপোর্ট হতে আব্দুল্লাপুর-ধউর-বড় আশুলিয়া-জিরাবো-বাইপাইল হয়ে ঢাকা ইপিজেড পর্যন্ত প্রায় ২৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে ব্যয় হবে প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে প্রকল্প সহায়তা প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা এবং জিওবি প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা।

প্রকল্পের আওতায় আশুলিয়া এলাকার বিস্তীর্ণ হাওরের জলপ্রবাহ অবাধ রাখা, ঢাকা মহানগর ঘিরে সার্কুলার জলপথ এবং পরিবেশ সুরক্ষায় আশুলিয়ায় বিদ্যমান সড়ক বাধের পরিবর্তে প্রায় ৩ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি চারলেন সেতু নির্মাণ করা হবে। এক্সপ্রেসওয়ের নিচ দিয়ে বিদ্যমান প্রায় ১৪ কিলোমিটার সড়ক চারলেনে উন্নীত করা হবে। নবীনগরে দু’টি ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হবে। প্রতিটি ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য হবে প্রায় এক কিলোমিটার। সড়কের দুপাশে প্রায় ১৮ কিলোমিটার ড্রেনেজ নির্মাণ করা হবে।

ঢাকা মহানগরীর সাথে আশুলিয়া শিল্পাঞ্চল ও ইপিজেডের যোগাযোগ সহজতর করতে বাংলাদেশ ও চীন সরকার জি-টু-জি ভিত্তিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। ইতোমধ্যে বাণিজ্যিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। শীঘ্রই ঋণ চুক্তি স্বাক্ষর হবে। প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি শেষ করে এ বছরের ডিসেম্বরে প্রকল্পটির মূল কাজ শুরু হবে বলে মন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, পদ্মা বহুমুখী সেতু নিয়ে যারা গুজব ছড়াচ্ছেন তাদের আইনের আওতায় আনা হবে এবং শাস্তি তাদের পেতেই হবে। তিনি আরো বলেন, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মূল সেতুর কাজের বাস্তব অগ্রগতি শতকরা ৮১ ভাগ। মূল সেতুর ২৯৪টি পাইলের মধ্যে ২৯৩টি পাইল সম্পন্ন হয়েছে। অবশিষ্ট ১টি পাইল ড্রাইভের কাজও ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ হবে। মূল সেতুর ৪২টি পিয়ারের মধ্যে ৩০টি পিয়ারের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। মাওয়া সাইটে এ পর্যন্ত ট্রাস (স্প্যান) এসেছে ২৫টি, যার মধ্যে ১৪টি স্প্যান স্থাপন করা হয়েছে। ফলে এখন ২১০০ মিটার দৃশ্যমান।

এ সময় সেতু বিভাগের সিনিয়র সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, ঢাকা আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোঃ শাহাবুদ্দিন খান, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোঃ শফিকুল ইসলামসহ সেতু বিভাগের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

All rights reserved © -2019
IT & Technical Support: BiswaJit