মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ০৫:০২ অপরাহ্ন

পুলিশের শতভাগ দুর্নীতিমুক্ত চাঁই: নড়াইল পুলিশ সুপার

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি■(১৮ জুন): ২৭৪: জনগণের ট্যাক্সের টাকায় যে পুলিশের বেতন হয়, সেই পুলিশ জনগনের পুলিশিং সেবা নিশ্চিতে বাধ্য। বাংলাদেশ পুলিশের সেবা বান্ধব এমন দৃঢ়তা ব্যক্ত করে নড়াইলের পুলিশ সুপার এসপি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার)। পুলিশকে শতভাগ দুর্নীতিমুক্ত ঘোষণা করেন তিনি।

আজ থেকে কোন পুলিশ কর্মকর্তা বা পুলিশ সদস্য মানুষের কাছে হাত পেতে টাকা নিতে পারবেন না। কোনো ভিক্ষুক পুলিশ নড়াইলে থাকতে পারবেন না। সব পুলিশদের উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন। একই সাথে এই ঘোষণার শতভাগ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কোন বিচ্যুতি পেলে তাৎক্ষনিক জেলা পুলিশের কর্মকর্তাদের সহযোগিতা করার জন্য সংবাদ মাধ্যমকে অনুরোধ করেন তিনি।

আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, নড়াইলের ৪টি থানার ওসিদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে, সাধারণ ডায়েরী, মামলা দায়ের কিংবা পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের নামে কোন প্রকার টাকা লেনদেন করা যাবে না। নির্দেশ অমান্যকারী কোন পুলিশ এই জেলায় থাকতে পারবেন না বলে তিনি জানান। নড়াইলে যোগদানের পর থেকে তাঁর বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকা-ের কারণে সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছেন। এরই ধারাবাহিকতায় নড়াইল এসপি অফিসে নতুন সংযোজন হয়েছে আপ্যায়নের ব্যবস্থা। নড়াইলের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় পুলিশ সুপারের সাথে দেখা করতে আসা মানুষদের সামনে নাশতার ট্রে।

বিষয়টা কিছুটা আগ্রহের সাথে খতিয়ে দেখতে এ প্রতিবেদক যখন দর্শনার্থীদের সাথে কথা বলেন তখন জানতে পারেন এ নাশতাগুলি নড়াইলের এসপি অফিস থেকেই সরবরাহ করা হয়েছে। জানা গেছে, নড়াইলবাসীর নানা সমস্যা সমাধানকল্পে পুলিশ সুপার নানাবিধ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত দর্শনার্থীদের সাথে বিলম্ব না করেই তিনি সর্বদা তাদের সাথে হাসিমুখে কথা বলেন বলে অনেক দর্শনার্থী জানান। এছাড়াও যদি আগত দর্শনার্থীর সমস্যার সমাধান না দিতে পারেন তাহলে তাকে উপযুক্ত পরামর্শ দিয়েও সহায়তা করেন পুলিশ সুপার। আর এ কারণে দর্শনার্থীরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এ ব্যাপারে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার), পুলিশ জনগণের বন্ধু। আর আমরা যদি জনগণের সাথে সদ্ভাব বজায় রাখতে ব্যর্থ হই তাহলে পুলিশের উপর থেকে জনগণের আস্থা হারিয়ে যাবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম (পিপিএম), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ শরফুদ্দীন, নড়াইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইলিয়াস হোসেন (পিপিএম), নড়াইল জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আশিকুর রহমান, ডিআইও-১ এস এম ইকবাল হোসেনসহ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তা এসময় গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হিমেল মোল্যা, পৌর কমিশনার মাহাবুর রহমান, আকতার মোল্যা, বুলুদাস, জাহাংগীর সেখসহ ক্লাবের সকল সদস্যবৃন্দসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

এ ব্যাপারে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার), বলেন, পুলিশ সুপার বিগত দিনে মতো গণমাধ্যমের সর্বাঙ্গীন সহযোগিতার প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, যে কোন ধরনের চাঁদাবজি এমনকি কোন পুলিশ সদস্য হলেও তার তথ্য প্রদানের অনুরোধ করেন তিনি। সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু ঠেকাতে সড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল ও অদক্ষ চালককে নিরুৎসাহিত করণ, মটর সাইকেল চুরি বা ছিনতাইসহ আসন্ন ঈদে জনগনের জানমালের সার্বিক নিরাপত্তা রক্ষায় জেলা পুলিশের প্রস্তুতি তুলে ধরেন। বর্তমানে নড়াইলের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অবস্থা খুবই সন্তোষজনক। সকলে মিলে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করলে জনগণের সেবার মান আরও উন্নত হবে। যেহেতু মানুষের বিপদের সময়ের প্রধান আশ্রয়স্থল হলো পুলিশ সেহেতু পুলিশকে তার কাজের প্রতি আরও আন্তরিক হতে হবে। এছাড়াও মাদককে শুন্যের কোটায় আনতে একমাত্র তথ্য উৎস হিসেবে সংবাদ মধ্যম যেভাবে দায়িত্ব পালন করছেন একই ভাবে মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাস নির্মূলে জিরো টলারেন্সের ভিত্তিতে কাজ করে যেতে হবে।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit