শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:০৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
সারাদেশে মহাসমারোহে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী উৎসব পালিত টাকা ফেরত দিয়ে ক্ষমা চেয়ে এ যাত্রায় রক্ষা পেল পল্লীবিদ্যুৎ কুলাউড়ায় ‘শ্রীগীতা শিক্ষাঙ্গন’র জন্মাষ্টমী উদযাপন ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে দুই মোটরসাইকেল চোর আটক, দুটি মোটরসাইকেল উদ্ধার ফরিদপুরে নানা কর্মসূচিতে জন্মাষ্টমী পালিত সালথায় শ্রী কৃষ্ণের জন্মষ্টমীতে বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের শত্রুরা জাতিরও শত্রু -ওবায়দুল কাদের রাণীনগরে শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপন নবীগঞ্জে বর্নাঢ্য আয়োজনে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালন মাতৃভূমি থেকে রোহিঙ্গাদের বিতাড়ণ ও বিশ্ববিবেক

বেনাপোলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার উপর বোমা হামলা

বেনাপোলে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার উপর বোমা হামলা

মোঃ মাসুদুর রহমান শেখঃ বেনাপোলে পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুলফিক কার আলী মন্টুর উপর বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকুল হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বোমা তৈরির সরঞ্জাম, ম্যাগজিন, গুলি ও ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে পুলিশ।
পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুলফিকাকার আলী মন্টু  বলেন, বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) রাত ১২টার দিকে তিনি ও তার বন্ধু সুমন ইসলাম বাজার থেকে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। বাড়ির সামনে তিনজনকে মুখে কালো কাপড় বেঁধে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে মোটরসাইকেল থামান তারা। এসময় তাকে লক্ষ্য করে কালো কাপড় বাঁধা লোকগুলো বোমা ছুড়ে। বাড়ির ওপরও দুইটি বোমা ছুড়ে তারা পালিয়ে যায়, তবে সেগুলো বিস্ফোরিত হয়। দ্রুত তারা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের চেনা যায়নি।
এদিকে বোমা হামলায় মন্টু মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলেও অক্ষত আছেন তিনি। তবে তার বন্ধু কিছুটা আহত হয়েছেন। এ নিয়ে মন্টুকে পাঁচবারের মতো হত্যার চেষ্টা করা হলো।
এদিকে ঘটনার পর পুলিশ সন্দেহভাজন হিসেবে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকুল হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালায়। তার বাড়ি থেকে বোমা তৈরির সরঞ্জম, ১২টি ম্যাগজিন, পিস্তলের তিন রাউন্ড গুলি, আটটি দেশীয় অস্ত্র, হাতুড়ি ও ৩৩ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে।
বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, খবর পেয়ে তারা মোটরসাইকেলে থাকা আহত সুমনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। বোমা লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় মন্টু বেঁচে গেছেন। মন্টুর বাড়ি থেকে অবিস্ফোরিত দুইটি বোমা জব্দ করা হয়েছে।
তবে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকুল হোসেন  জানান, রাজনৈতিক চাপে তিনি গত ছয় মাস ধরে এলাকা ছাড়া। ওই বাড়িতেও কেউ থাকেন না তিনি। হয়রানি করতেই প্রতিপক্ষের সাজানো এই ঘটনা ঘটিয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুলফিকাকার আলী মন্টু স্থানীয় সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিনের অনুসারী। উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকুল হোসেন বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটনের অনুসারী। রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার নিয়ে এই দুই নেতার মধ্যে গত পাঁচ বছর ধরে শত্রুতার সর্ম্পক। প্রায়ই তাদের অনুসারীদের মধ্যে হামলা-মামলার ঘটনা ঘটে আসছে।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

All rights reserved © -2019
IT & Technical Support: BiswaJit