সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ছাতকের বাগবাড়ী প্রাথমিকবিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে আবার নির্বাচন দিতে হবে : ফখরুল নির্বাচিত সংসদকে যারা অবৈধ বলে তারাই অবৈধ- কাদের বিকাশ-রকেটের ব্যালেন্স জানতে খরচ হবে ৪০ পয়সা বিশ্বকাপ সাতটি ম্যাচেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয় ভারতের মুকুলের হাত ধরেই বিজেপিতে তৃণমূল বিধায়কসহ বহু কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দিলেন সাত শতাধিক তৃণমূল নেতাকর্মী জনস্বাস্থ্য, নগর উন্নয়ন ও পল্লী উন্নয়নে সুইজারল্যান্ডের ভূমিকা উৎসাহব্যঞ্জক -স্থানীয় সরকার মন্ত্রী নারী নির্যাতন জাতীয় উন্নয়নের পথে সবচেয়ে বড় বাধা -আইনমন্ত্রী স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর সাথে ডেনমার্ক রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

ভোলায় বাল্য বিবাহ পড়ানোর অপরাধে ৯ জনের জেল-জরিমানা

ভোলায় বাল্য বিবাহ পড়ানোর অপরাধে ৯ জনের জেল-জরিমানা

ভোলা প্রতিনিধি॥  ভোলায় পৃথক দু’টি বাল্য বিবাহ পড়ানোর অপরাধে বর-কনে,অভিবাবক ও কাজিসহ ৯ জনের জেল-জরিমানা প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এদের মধ্যে ৩জনকে ৬ মাস করে কারাদন্ড, ৪জনকে ১০হাজার টাকা করে ও ২ জনকে ৫ হাজার টাকা করে জড়িমানা করা হয়।

বৃহষ্পতিবার(১৩জুন) দুপুর ২টার দিকে ভোলা শহরের সামসুদ্দিন মার্কেটে অবস্থিত কাজি অফিসে বাল্য বিবাহ পড়ানোর সময় ভোলা সদর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওছার হোসেন বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ এর ৮ ধারা অনুযায়ী এ দন্ডাদেশ প্রদান করেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন কাজী মো. ইকবাল হোসেন, তার সহকারী মো. হাসান, বর মো. সজিব। এদের মধ্যে কাজী মো. ইকবাল হোসেন সদর উপজেলার পরানগঞ্জ বাজার এলাকার সৈয়দ আহম্মদ এর ছেলে। তার সহকারী মো. হাসান একই উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মো. আব্দুল মতিনের ছেলে এবং বর মো. সজিব বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ইউনিয়নের মুলাইপত্তন গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে।

অর্থদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন বোরহানউদ্দিন উপজেলার মুলাইপত্তন গ্রামের প্রবাসী মো. মফিজুল ইসলাম ফরাজীর স্ত্রী নাসিমা আক্তার, তার নবম শ্রেণি পড়–য়া মেয়ে কনে মোসা. ফাতেমা আক্তার মিতু, সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের মো. সবুজ, মজিব উদ্দিন, মাইনুদ্দিন ও নাজিম উদ্দিন।

জানাযায়, বৃহষ্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে ভোলা শহরের সামসুদ্দিন মার্কেটে অবস্থিত কাজি অফিসে বাল্য বিবাহ পড়ানোর সময় কাজি মো. ইকবাল হোসেন, তার সহকারি মো. হাসান ও তুবোরহানউদ্দিনের মো. সজিব (১৯), একই এলাকার নবম শ্রেণি পড়–য়া মোসা. ফাতেমা আক্তার মিতু ও তার মা নাসিমা আক্তারকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালত। পরে তাদের মধ্যে কাজি, তার সহকারি ও বরকে ৬ মাস করে কারাদন্ড প্রদান করেন। কনে ও তার মাকে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।

এছাড়াও সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের চেউয়াখালী গ্রাম থেকে বুধবার রাতে বাল্য বিবাহ পড়ানোর সময় বর, মেয়ের বাবা ও চাচাসহ ৪জনকে আটক করে পুলিশ। এদের মধ্যে বর মো. সবুজ, মেয়ের বাবা মো. মজিব উদ্দিন, চাচা মাইনুদ্দিন ও নাজিম উদ্দিনকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। এসময় মেয়ের বাবা বয়স ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত কন্যাকে বিবাহ দিবে না মর্মে মুচলেকা দেন।

ভোলা সদর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাওছার হোসেন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাল্য বিবাহ সংগঠিত হওয়ার সংবাদ পেয়ে বাল্য বিবাহ ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি এবং পুলিশের সহায়তায় ভোলা পৌরসভার ২নং ওয়ােের্ডর কাজি অফিস থেকে কাজিসহ ৫জন ও সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়ন থেকে বর ও মেয়ের বাবাসহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জনকে ৬ মাস করে কারাদন্ড ও বাকি ৬ জনকে সর্বমোট ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit