শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:১৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে হবে -পরিকল্পনামন্ত্রী নড়াইলে হিন্দু সম্প্রদায়ের আরাধ্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সুবিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালী ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে মহানাম সংকীর্ত্তনসহ বর্নাঢ্য শোভা যাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত যশোরের বেনাপোল সীমান্তে ফেনসিডিল ও ভারতীয় মালামালসহ আটক-১ হিন্দু সম্প্রদায়ের সমস্যা সমাধানে কোন ভূমিকা রাখেনি জাতীয় সংসদ -হিন্দু মহাজোট রাজারহাটে শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা আশাশুনিতে শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী যথাযোগ্য মর্যাদায় সম্পন্ন অশুভ শক্তিকে সমাজ থেকে বিনাশ করতে হবে -লাবু চৌধুরী পঞ্চগড়ে আসমা হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন, প্রধান আসামী বাঁধনের আত্মসমর্পন

মাতৃভাষায় সর্বোচ্চস্তর পর্যন্ত শিক্ষা চায় আরএসএস

মাতৃভাষায় সর্বোচ্চস্তর পর্যন্ত শিক্ষা চায় আরএসএস

বিপুল জনসমর্থন পেয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী৷ এনডিএন২-এ মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন সংঘ ঘনিষ্ঠ রমেশ পোখরিয়াল নিশঙ্ক৷ শপথ নেওয়ার পর তাঁর কাছে নতুন শিক্ষানীতির একটি খসড়া জমা পড়ে৷ যেখানে ভারতের প্রতিটি রাজ্যে তিনটি ভাষা শেখানোর কথা বলা হয়েছে৷ পাশাপাশি অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি বাধ্যতামূলক করার কথা বলা হয়েছে৷

বিরোধীদের অভিযোগ হিন্দি বাধ্যতামূলক করার পেছনে আসলে সংঘের চাপ রয়েছে৷ এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে দক্ষিণবঙ্গ আরএসএসের এক শীর্ষ প্রচারক বলেন, ‘‘পুরো বিষয়টায় মিথ্যে৷ আরএসএস সবসময় মাতৃভাষাকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেছে৷ এখনও তাই বলছে৷’’

২০১৮ সালে নতুন শিক্ষানীতি নিয়ে আরএসএস সরসংঘ চালক মোহন ভাগবতজীর বক্তব্য ছিল, কোনও বিদেশি ভাষা নয়, ভারতীয় দর্শণ এবং সংস্কৃতির প্রতিফলন ঘটে এরকম কোনও ভাষাকে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে গুরুত্ব দিতে হবে৷ এরপরই ২০১৯-এ অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি বাধ্যতামূলক করার খসড়া আসায় বিশেষজ্ঞরা মনে করেছেন এর পেছনে আসলে আরএসএস রয়েছে৷ নয়া শিক্ষানীতির এই খসড়া সামনে আসার পরই দক্ষিণের অ-হিন্দিভাষী রাজ্যগুলি সহ পশ্চিমবঙ্গেও এর বিরোধিতা শুরু হয়৷ টুইটারে ‘স্টপ হিন্দি ইমপোজ’ হ্যাসট্যাগও চালু হয়৷

বিরোধীদের অভিযোগ অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি বাধ্যতামূলক আসলে আরএসএসের ‘হিন্দি হিন্দু হিন্দুস্থান’ আদর্শেরই অঙ্গ৷ এভাবেই ধাপে ধাপে ভারতকে ক্রমশ হিন্দুরাষ্ট্রর বাননোর দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চায় আরএসএস৷ এই সব অভিযোগকে সরাসরি মিথ্যে দাবি করে দক্ষিণবঙ্গ আরএসএস-এর শীর্ষ প্রচারক বলেন, ‘‘২০১৫ সালে অখিল ভারতীয় প্রতিনিধি সভাতে (আরএসএস কার্যকর্তাদের সভা) প্রস্তাব নেওয়া হয়েছিল সর্বোচ্চস্তর পর্যন্ত মাতৃভাষায় শিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে৷ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়েই আরএসএসের বিরুদ্ধে মিথ্যে কথা প্রচার করা হচ্ছে৷ আমরা কারও উপর কোনও কিছু চাপিয়ে দেওয়ার পক্ষপাতি নই৷’’

নতুন শিক্ষানীতির খসড়া যেটি নিয়ে এত বিতর্ক সেটি তৈরি করেছে প্রাক্তন কস্তুরীরঙ্গন কমিটি৷ যার প্রধান ইসরোর প্রাক্তন চেয়ারম্যান কৃষ্ণস্বামী কস্তুরীরঙ্গন৷ নতুন খসড়া অনুযায়ী, স্কুল শিক্ষায় তিনটি ভাষা শেখানোর প্রয়োজনীয়তার কথা বলা হয়েছে৷ এই খসড়া অনুসারে হিন্দিভাষী রাজ্যে হিন্দি, ইংরেজির পাশাপাশি ছাত্রছাত্রীরা যে কোনও ভাষা বেছে নিতে পারে৷ অ-হিন্দিভাষী রাজ্যের জনগন মাতৃভাষা, ইংরেজির পাশাপাশি অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি পড়বেন৷ বিশেষজ্ঞদের মতে সারাদেশে সংযোগকারী দেশীয় ভাষা হিসেবে হিন্দিকে তুলে ধরার উদ্দেশ্য নিয়েই এই নয়া শিক্ষানীতির খসড়া তৈরি করা হয়েছে৷

তবে এনডিএর শরিক দল এডিএমকে এবং পিএমকে সহ দক্ষিণী রাজ্যগুলির চাপের মুখে অষ্টম শ্রেণী অবধি হিন্দি বাধ্যতামূলক করার বিষয়টি খসড়াপত্র থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে৷ কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে কারও উপর হিন্দি চাপাতে চায় না তারা৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এবং জয়শঙ্কর এ-নিয়ে তামিল ভাষায় টুইটও করেন৷

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

All rights reserved © -2019
IT & Technical Support: BiswaJit