সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
রাজধানীর মালিবাগে ককটেল বিস্ফোরণে নারী পুলিশসহ আহত ৩ বিএনপি নেতারাই খালেদা জিয়াকে অসুস্থ বানিয়েছেনঃ তথ্যমন্ত্রী জাপানের সঙ্গে বড় ঋণচুক্তির আশা -প্রধানমন্ত্রী বেনাপোলে জমজমাট ঈদের বাজারে ব্যস্ত দোকানিরা বাগেরহাটে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বিক্ষোভ নবীগঞ্জে সাংবাদিক মুজিবুর রহমানের পিতার দাফন সম্পন্ন,হাজারো মানুষের ঢল নবীগঞ্জে ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরে জমি দখলের পাঁয়তারা হাসিল করতে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ বেনাপোল সীমান্ত থেকে ভারতীয় রুপি,ডলার ও ফেন্সিডিল উদ্ধার আটক ১ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে উঠে গেছে -শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আশাশুনিতে ইয়াবাসহ গ্রেফতার-২

গ্রাম-গঞ্জে ইরি-বোরো ধান কাটা ও মাড়াইয়ের উৎসব শুরু হয়েছে

ধান কাটা ও মাড়াইয়ের উৎসব

রতি কান্ত রায়(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের গ্রাম-গঞ্জে চলতি ইরি-বোরো মৌসুমে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের উৎসব শুরু হয়েছে। কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকার মাঠজুড়ে এখন ধানের শীষের সোনালী রঙের বর্ণিল ছোঁটার সমারোহ।
যতদুর চোখ যায় শুধু সোনালী রঙের চোখ ধাঁধাঁনো দৃশ্য। মাঠজুড়ে সোনালী রঙ বলে দিচ্ছে গ্রামবাংলার কৃষকের মাথার ঘাম পায়ে ফেলা ইরি-বোরো ধান চাষের সফলতা আসন্ন। চলতি মৌসুমে ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলনের অাশা করছেন এই জেলার কৃষককূল।
 কুড়িগ্রামের গ্রাম-গঞ্জে ইরি- বোরো ধান কাটা ও মাড়াইয়ের উৎসব শুরু হয়েছে। এ উৎসবকে ঘিরে এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা ও শ্রমজীবীরা । শ্রমজীবীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন ইরি-বোরো ধান কাটা ও মাড়াইয়ে। অায়-রোজগারও ভালো হচ্ছে তাদের। কয়েক জনের সাথে কথা বলে জানা যায় যে, তারা বিঘা প্রতি ২০০০ করে  ইরি-বোরো ধান কাটছেন মাড়াই বাদে। এবার  কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় ছয়টি ইউনিয়নে অর্জিত  লক্ষ্যমাত্রার ১১ হাজার ৪৫০ জমিতে ইরি-বোরো চাষ হয়েছে। এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহাবুর রশীদ জানান, ফুলবাড়ী উপজেলায় এবার ১১ হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে বোরো চাষ হয়েছে। ইতোমধ্যে লক্ষ্যমাএার তিন ভাগের এক ভাগ কাটা ও মাড়াই হয়েছে।  এবার কুড়িগ্রামের নয়টি উপজেলায় ১ লাখ ১৫ হাজার ৭৯১ হেক্টর জমিতে বোরো চাষ হয়েছে।
বোরো ধানে অন্যান্য বারের তুলনায় এবার রোগব্যধি কম হওয়ায় ফসল অনেকটা ভাল হয়েছে। এতে কুড়িগ্রামের কৃষকরা অনেকটা স্বস্তি নিয়েই বোরো ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ শুরু করেছেন। এখানে এখনও পুরোপুরি কাটা ও মাড়াই শুরু না হলেও চর এলাকাগুলোতে এ কাজ শুরু হয়ে গেছে।
ফুলবাড়ীর বড়ভিটা চরাঞ্চলের কৃষক সামিউল হক প্রতিবেদক কে বলেন, তিনি ২ বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছেন। এখন এই ধান কেটে এনে মাড়াই করে ২ বিঘায় ৩৫ মণ ধান পেয়েছেন। সঠিক পরিচর্যা হলে তিনি আরও বেশি ধান পেতেন।
একই এলাকার কৃষক ইউনুছ আলী জানান, তিনি ৩ বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছেন। ক্ষেতে পোকার আক্রমণ কম হওয়ায় এবার তার বোরোর ফলন ভাল হয়েছে। ওই ফসল কাটা ও মাড়াই শুরু হয়েছে। তিনি বিঘাপ্রতি ২০ মণ ধান পাওয়ার আশা করছেন।
কৃষক জয়নাল আবেদীন, রজব আলী, সেরাজুলসহ আরও অনেকেই বোরো ধান কাটা ও মাড়াই কাজ শুরু করেছেন। বিঘাপ্রতি তারা ১৮ থেকে ২০ মণ ধান পাওয়ার আশা করছেন। এতে ধান উৎপাদনের ৬/৮ হাজার খরচ বাদ দিয়ে ধান বিক্রি করে তারা বিঘাপ্রতি ৪/৫ হাজার টাকা আয় করার আশা করছেন।পশ্চিম ধনীরামের রেজারুল ইসলাম এবার ২৭ বিঘা জমিতে বোরো ধান চাষ করেছেন। ২৭ বিঘা জমিতে ১১০-১১৫ মন ধান পাওয়ার অাশা করছেন। চন্দ্-
খানা গ্রামের জাহিদুল ইসলাম ড়ের বিঘা জমিতে বোরো ধান চাষ করেছেন একই গ্রামের শ্রী কান্ত রায় দুই বিঘায় বোরো ধান চাষ করেছেন ।
কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ীর উপ-সহকারী কৃষিকর্মকর্তা বিমল কুমার দে জানান, কুড়িগ্রামের নয়টি উপজেলায় এবার ১ লাখ ১৫ হাজার ৭৯১ হেক্টর জমিতে বোরো চাষ হয়েছে। বোরো ক্ষেতে পোকার আক্রমণ কম হওয়ায় এবার কুড়িগ্রামে বোরো চাষে কৃষকরা আশানুরূপ ফলন পাবেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit