বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ০৬:৪১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশ অগ্রসর হচ্ছে -আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রীর রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প পরিদর্শন চেক প্রজাতন্ত্রের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির চুক্তি স্বাক্ষরিত নড়াইলে হত্যাকাণ্ডের জের ধরে আসামীদের বাড়ি লুটপাট ও ভাংচুর পুলিশ জনগণের বন্ধুঃ পুলিশ সুপার নড়াইল নড়াইলে গভীর রাতে ডিবি পুলিশের পৃথক অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার-২ ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বাংলাদেশের সাথে কাজ করবে এস্তোনিয়া প্রতিমন্ত্রী যোগ দেয়ায় মন্ত্রণালয়ের কাজের গতি বাড়বে -তথ্যমন্ত্রী নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুতের দাবিতে উত্তাল নবীগঞ্জ॥ রাস্তা অবরোধ ॥ ৭ দিনের আল্টিমেটাম প্রবীর সিকদারের গ্রেপ্তারের দাবি ফরিদপুরের মুক্তিযোদ্ধাদের

ধেয়ে আসছে ‘ফণি’ চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরে ৬, মোংলা-পায়রা ৭ নম্বরের হুঁশিয়ারি

ধেয়ে আসছে ‘ফণি’ চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরে ৬, মোংলা-পায়রা ৭ নম্বরের হুঁশিয়ারি

সময় যত সামনের দিকে এগিয়ে চলছে ততই প্রকট আকার ধারন করছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণি’। আর এই ঘূর্ণিঝড় ‘ফণি’ শক্তিশালী হয়ে ওঠার সাথে সাথে সমুদ্রবন্দরগুলোতে সতর্কতার মাত্রা বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ৭নম্বর, চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরে ৬ নম্বর ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তর বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘ফণি’ উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। বর্তমানে এটি চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১০৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১০২৫ কিলোমিটার দক্ষিন-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯২৫ দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

আগামীকাল ৩ মে শুক্রবার বিকেলের দিকে ভারতের উড়িষ্যা উপকূলে আঘাত হানতে পারে এবং পরবর্তীতে উড়িষ্যা-পশ্চিমবঙ্গ উপকূল হয়ে ৩ মে সন্ধ্যার দিকে বাংলাদেশের খুলনা ও দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকায় আঘাত হানতে পারে।

মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ০৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ০৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ০৭ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরকে ০৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ০৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ০৬ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ০৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় এবং অমাবস্যার প্রভাবে উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, বরগুনা, ভোলা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৪-৫ ফুট অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় অতিক্রমকালে চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, ভোলা, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা জেলা সমূহ এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণসহ ঘণ্টায় ৯০-১১০ কিলোমিটার বেগে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে অতিসত্বর নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বলা হয়েছে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit