সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
রাজধানীর মালিবাগে ককটেল বিস্ফোরণে নারী পুলিশসহ আহত ৩ বিএনপি নেতারাই খালেদা জিয়াকে অসুস্থ বানিয়েছেনঃ তথ্যমন্ত্রী জাপানের সঙ্গে বড় ঋণচুক্তির আশা -প্রধানমন্ত্রী বেনাপোলে জমজমাট ঈদের বাজারে ব্যস্ত দোকানিরা বাগেরহাটে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বিক্ষোভ নবীগঞ্জে সাংবাদিক মুজিবুর রহমানের পিতার দাফন সম্পন্ন,হাজারো মানুষের ঢল নবীগঞ্জে ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরে জমি দখলের পাঁয়তারা হাসিল করতে মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ বেনাপোল সীমান্ত থেকে ভারতীয় রুপি,ডলার ও ফেন্সিডিল উদ্ধার আটক ১ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে উঠে গেছে -শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আশাশুনিতে ইয়াবাসহ গ্রেফতার-২

আজও কালী মন্দিরের সমানে বিক্রি করা হচ্ছে গরুর মাংস

কালী মন্দিরের সমানে গরুর মাংস

রনি দে, কক্সবাজারঃ এটা কোন হিন্দু গরিষ্ট ভারত নয়। কালী মন্দিরের সামনে গরুর মাংস বিক্রয় করার চিত্রটি বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলা গোরকঘাটা বাজারের  চৌরাস্তায়।

আজ রবিবার আবার মহেশখালী উপজেলাগোরকঘাটা বাজারের চৌরাস্তায় কালী মন্দিরের সামনে গরুর মাংস বিক্রি করতে দেখা যায়।

মন্দির কমিটির দাবি এই রকম ঘটনা যদি অন্য কোন ধর্মীয় প্রতিষ্টানের সামনে ঘটতো তাহলে আজ হাজার তাল বাহানার খেলা ১৯৭১ সালের ন্যায়, মহেশখালীতে হয়ে যেত। তাদের দাবি সব সময় দেখা যায় মন্দিরে পেছন দিকে এবং সামনে গরুর মাংস বিক্রি করতে।

তারা  বিষয়টির তিব্র নিন্দা করেছেন। তারা নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছেন, নেতারা আজ কোথায়? কেন এত সাম্প্রদায়িক চিন্তা? হিন্দুরা কী কখনো এই রকম করেছে ? তারা আরো বলেন অনেক বন্ধুর হয়তো খারাপ লাগতে পারে! কিন্তু তাদের বেলায় এমন হলে কিন্তু আমাকে বা আমাদের ছাড় দিত না, তার প্রতিকার করতো।

তাদের বক্ত্যব্য বাজারে আরো তো অনেক জায়গা ছিল শুধু মাত্র সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বাধানো, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের চেতনায় আঘাত করার জন্য, হিন্দু মন্দিরে ভাংচুর ও লুট, মন্দির দখল ইত্যাদি কাজ করার জন্য এই ধরনের কাজ।

তারা বিনয়ের সহিত প্রশানকে অনুরোধ করে জানাতে চান, মন্দিরের পবিত্রতা রক্ষা করার জন্য এই ব্যবসা মন্দিরের সামনে/পেছন থেকে উচ্ছেদ করা হোক, এবং ঐ ব্যক্তিদের দৃষ্টান্ত মুলক ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য জোরালো পদক্ষেপ গ্রহন করতে অনুরোধ ।

তারা সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেছেন মন্দিরের সামনে এই রকম গরুর মাংস বিক্রয় ভাল দেখায় না। যদি বাংলাদেশ ধর্মনিরপেক্ষ দেশ হয় তবে সরকার এর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেবেন। হিন্দু সম্প্রদায় একচেটিয়াভাবে নৌকায় ভোট দেয় কারন তারা মনে করেন শেখ হাসিনা জননেত্রী। তিনি সঙ্খালঘুদের পাশে থাকবেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit