শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ১০:২২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
তারেক রহমানকে কারাভোগ করতেই হবে -উপমন্ত্রী শামীম মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে কাজ করে জীবন উৎসর্গ করতে চাই -গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ এমপি কালীগঞ্জের কোলা হাইস্কুলে বার্ষিক ক্রিড়ার পুরষ্কার বিতরণ কালীগঞ্জে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের সাইনবোর্ড লাগানোকে কেন্দ্র করে হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জনগণের সাথে সহৃদয় আচরণ করুন – তথ্যমন্ত্রী যশোরে সাংবাদিকের পিতার মৃত্যুতে জেইউজের শোক যশোরে জব ফেয়ার ২৪ এপ্রিল: ৫২ প্রতিষ্ঠানে মিলবে চাকরি যবিপ্রবির ৮ শিক্ষার্থী বহিষ্কার, কর্মচারী চাকরিচ্যুত উলিপুর উপজেলা প্রেসক্লাব এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ফিলিপাইন কর্নার পাঠকদের ফিলিপাইনের সাহিত্য-সংস্কৃতি জানতে সহায়তা করবে -সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

বিজ্ঞাপনমুক্ত বিদেশি চ্যানেল প্রচার ও ডিজিটাল পদ্ধতি প্রয়োগ করুন

কেব্ল অপারেটরদেরকে তথ্যমন্ত্রী

কেবল অপারেটরদের বিজ্ঞাপনমুক্ত বিদেশি চ্যানেল প্রচার ও ডিজিটাল পদ্ধতি প্রয়োগে ব্রতী হবার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ। সেই সাথে বেআইনিভাবে নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন, সিনেমা, গান ইত্যাদি প্রচার না করার বিষয়ে সকল অপারেটরকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

আজ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে কেবল অপারেটরদের সাথে বৈঠকে মন্ত্রী এ বিষয়ে নির্দেশনা দেন। তথ্যসচিব আবদুল মালেক ও অতিরিক্ত সচিব মিজান-উল-আলম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশে আইনগতভাবে কেউ বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করতে পারে না। ইতিমধ্যেই আমরা এ ব্যাপারে কিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। ডাউনলিংকের অনুমতি যারা পেয়েছেন তাদেরকে নোটিশ করা হয়েছে, তারা নোটিশের জবাব দিয়েছেন। কিছু ব্যবস্থা তারা ইতিমধ্যেই গ্রহণ করেছেন। বাকি ব্যবস্থা কতটো কিভাবে করবেন এ ব্যাপারে তারা ১৫ দিন সময় চেয়েছেন এবং আমরা সেই সময় মঞ্জুর করেছি।’

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘এই আইনটি শুধু বাংলাদেশে আছে তা নয়, পাকিস্তানে, ভারতে বা ইউরোপের দেশগুলোতে যে সমস্ত বিদেশি চ্যানেল দেখানো হয় সেগুলো ভিনদেশের বিজ্ঞাপন ছাড়াই দেখানো হয়। বাংলাদেশের কোনো চ্যানেলও অন্যদেশে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করতে পারে না। আমাদের দেশে সেটি মানা হচ্ছিল না। আমরা সেই আইন প্রয়োগ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। দুটি প্রতিষ্ঠানকে আমরা চিঠি দিয়েছি, তাদের বক্তব্য হচ্ছে, এই ক্ষেত্রে কেব্ল নেটওয়ার্ক যারা পরিচালনা করেন তাদেরও কিছু ভূমিকা রয়েছে। সে বিষয়ে আপনাদের তৎপর হতে হবে।’

তথ্যমন্ত্রী পর্যায়ক্রমে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই দেশের সকল জেলার কেব্ল টিভি নেটওয়ার্ক ডিজিটাল পদ্ধতির আওতায় আনা এবং বাংলাদেশের চ্যানেলগুলোকে তাদের ফ্রিকোয়েন্সি পাবার ক্রম অনুযায়ী কেব্ল নেটওয়ার্ককে সম্প্রচারের নির্দেশনা দেন। অতিশীঘ্রই টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন এটকো কেব্ল অপারেটরদেরকে বাংলাদেশি টিভি চ্যানেলের ক্রম তালিকা পুনরায় সরবরাহ করবে, বলেন মন্ত্রী।

কেবল অপারেটর এসোসিয়েশন অভ্ বাংলাদেশ (কোয়াব) এর সাবেক কমিটির প্রধান আনোয়ার পারভেজের নেতৃত্বে নিজাম উদ্দিন মাসুদ, এবিএম সাইফুল হোসাইন, সেলিম সারোয়ার প্রমুখ বৈঠকে অংশ নেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit