শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ১০:৪১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
হাওরের মানুষের হতাশের কোনো কারণ নেই -এলজিআরডি মন্ত্রী সিলেটের মুহতামিম শফিকুল হক আমকুনীর মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক পর্যটনের প্রসারে গণমাধ্যমের ভূমিকা অপরিসীম -পর্যটন প্রতিমন্ত্রী তারেক রহমানকে কারাভোগ করতেই হবে -উপমন্ত্রী শামীম মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে কাজ করে জীবন উৎসর্গ করতে চাই -গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ এমপি কালীগঞ্জের কোলা হাইস্কুলে বার্ষিক ক্রিড়ার পুরষ্কার বিতরণ কালীগঞ্জে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের সাইনবোর্ড লাগানোকে কেন্দ্র করে হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জনগণের সাথে সহৃদয় আচরণ করুন – তথ্যমন্ত্রী যশোরে সাংবাদিকের পিতার মৃত্যুতে জেইউজের শোক যশোরে জব ফেয়ার ২৪ এপ্রিল: ৫২ প্রতিষ্ঠানে মিলবে চাকরি

২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত

২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ বলেছেন, গত ৬ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির শাবান মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্ত বহাল রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে গঠিত ১১ সদস্য উপ-কমিটি। জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে আগামী ২১ এপ্রিল দিবাগত রাত সারা দেশে পবিত্র শবে বরাত অনুষ্ঠিত হবে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আজ বিকাল তিনটায় ঢাকায় তাঁর মন্ত্রণালয়ের অফিস কক্ষে বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরামের সুপারিশ ও মতামতের আলোকে পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা বিষয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৪৪০ হিজরি সালের শাবান মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্তের বিষয়ে গত ১৩ এপ্রিল ইসলামিক ফাউন্ডেশন (বায়তুল মুকাররস্থ) সভাকক্ষে চাঁদ দেখা কমিটি এবং ওলামা ও মুফতিগণের সমন্বয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্তের বিষয়ে ভিন্নমত পোষণকারীদের দাবি যাচাইয়ে মারকাযুদ দাওয়াহ-এর শিক্ষাসচিব মাওলানা মুফতী মুহাম্মাদ আবদুল মালেককে প্রধান করে বিশিষ্ট উলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে ১১ সদস্যের একটি উপ-কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটি যারা চাঁদ দেখেছেন বলে দাবি করেছেন তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ ও যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে ১৭ এপ্রিলের মধ্যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে মর্মে জানায়। উক্ত সিদ্ধান্তের আলোকে বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে গঠিত উপ-কমিটি আজ সকাল সাড়ে দশটায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালকের বায়তুল মুকাররম কার্যালয়ে এক সভায় মিলিত হয়।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আরো জানান, উপ-কমিটি তাঁদের লিখিত সুপারিশে জানায়, নতুন চাঁদের বিষয়টি সম্পূর্ণ একটি দ্বীনী বিষয়। এ ব্যাপারে ইসলামী শরীয়ার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হয়। ২৯ রজবের সন্ধ্যায় যেহেতু জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির নিকট চাঁদ দেখেছেন বলে কেউ সাক্ষ্য দিতে আসেনি তাই ইসলামী শরীয়াহ অনুযায়ী পরের দিনকে ৩০ রজব হিসাব করে এর পরের দিন সোমবার পহেলা শাবান ঘোষণা করা হয়। পরে ২৯ রজব সন্ধ্যায় কোথাও নতুন চাঁদ দেখা গেছে এমন বক্তব্য সামনে আসার পর তথ্য পর্যালোচনার জন্য গত ১৩ এপ্রিল প্রতিমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সেই সভায় সিদ্ধান্ত হয়, ওলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি চাঁদ দেখেছেন এমন সাক্ষীদের বক্তব্য শুনে শরীয়তের দৃষ্টিকোণ থেকেই যাচাই-বাছাই করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। সেই হিসেবে আজকে সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ এবং তা যাচাইয়ের জন্য উক্ত কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। যেহেতু সাক্ষীগণ সাব-কমিটির বার বার অনুরোধের পরও সাক্ষ্য প্রদানের জন্য সভায় উপস্থিত হননি বরং সাক্ষ্য প্রদানের জন্য এমন কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছেন যেভাবে সাক্ষ্য গ্রহণের শরীয়তে কোন ভিত্তি নেই, তাই চাঁদ দেখার কোন সাক্ষীর সাক্ষ্য না পাওয়ায় আজকের সভা ইসলামী শরীয়াহ অনুযায়ী জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির গত ৬ এপ্রিল ঘোষিত সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছেন। অর্থাৎ পহেলা শাবান গত ৮ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হলো। সে মোতাবেক আগামী ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে সারা দেশে পবিত্র শবে বরাত অনুষ্ঠিত হবে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সদস্য ধর্ম সচিব মোঃ আনিছুর রহমানসহ অন্যান্য সদস্য এবং উপ-কমিটির প্রধান মুফতী মাওলানা আবদুল মালেক, সদস্য মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ এবং বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান প্রমুখ।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit