সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:৩১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
বুধহাটায় কেওড়া পার্কের উদ্বোধন করলেন ইউএনও কুড়িগ্রামে ধানক্ষেত থেকে রাজা মিয়ার মরদেহ উদ্ধার ঝিনাইদহে ট্রাক ও মাহেন্দ্র সংঘর্ষে ২ নারী নিহত, আহত-৮ আগৈলঝাড়া উপজেলা মহিলা আ.লীগের ২৩ ও আ.লীগের কাউন্সিল ২৯ অক্টোবর বগুড়ায় ‘বাংলাদেশে নারীর নিরাপদ অভিবাস’ শীর্ষক দিনবাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত খুলনা রেঞ্জ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০১৯ কলকাতা মহাত্মা গান্ধী স্মৃতি পুরস্কার পেলেন নবকাম কলেজের অধ্যক্ষ ফরিদপুরে সাংবাদিক নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ঐক্যফ্রন্ট ‘বিগত যৌবনা’ -চট্টগ্রামে তথ্যমন্ত্রী নদী তীরের অবৈধ স্থাপনা অপসারণ কাজ চলমান থাকবে -নৌসচিব

প্রযুক্তিগত শিক্ষা ছাড়া একবিংশ শতাব্দির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা সম্ভব হবে না -মোস্তাফা জব্বার

তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার

চতুর্থ শিল্প বিপ্লব বা ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে টিকে থাকার জন্য প্রযুক্তিগত শিক্ষাব্যবস্থা অপরিহার্য। প্রযুক্তি শিক্ষা রন্ধে রন্ধে প্রবেশ করাতে না পারলে একবিংশ শতাব্দির বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা সম্ভব হবে না। বললেন ডাক, টেলিযোগাযোগা ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার।

মন্ত্রী আজ ঢাকায় মিরপুর সেনানীবাসে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অভ প্রফেশনালস (বিইউপি) ক্যাম্পাসে বিইউপি তথ্যযোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ আয়োজিত টেকসার্জেন্স ২০১৯ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান।

কারিগরি শিক্ষা নিয়ে যত এগিয়ে যেতে পারব, অগ্রগতি তত ত্বরান্বিত হবে। ইন্টারনেট হচ্ছে জ্ঞানের ভান্ডার। শ্রেণিকক্ষের শিক্ষার সাথে প্রযুক্তির শিক্ষা গ্রহণের জন্য শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

জনাব মোস্তাফা জব্বার বলেন, কায়িক শ্রম ও অস্ত্রের শক্তির চেয়ে মেধা অনেক বেশী শক্তিশালী। আমাদের শিক্ষার্থীরা অত্যন্ত মেধাবী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণের যে যাত্রা শুরু করেছে তা এগিয়ে নিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ভুমিকা অপরিসীম উল্লেখ করেও তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও তার ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা জনাব সজীব আহমেদ এর দিকনির্দেশনায় প্রযুক্তির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ অভাবনীয় সফলতা অর্জন করেছে।

কৃষিযুগ থেকে শিল্প বিপ্লবের বিবর্তনের ক্রমবিকাশের ধারাবাহিকতা তুলে ধরে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, এই অঞ্চলের জন্য কৃষিযুগটা খুবই সমৃদ্ধ ছিল।

এর পরের রূপান্তর পৃথিবী শিল্প যুগে প্রবেশ করেছে। যন্ত্রকে ঠেকাতে হরতাল হয়েছে। পরবর্তীতে বুঝতে পেরেছে প্রযুক্তি ঠেকানো যায় না। আমরা তিনটি শিল্প বিপ্লব মিস করেছি। কিন্তু গত দশ বছরে প্রযুুক্তিতে তিনশত ২৪ বছর পিছিয়ে থেকেও বাংলাদেশকে চতুর্থ শিল্প যুগে নেতৃত্বের জায়গায় নিয়ে আসতে আমরা সক্ষম হয়েছি।

প্রথম শিল্প বিপ্লবের সাথে সমঞ্জস্যপূর্ণ শিক্ষা ডিজিটাল বিপ্লবের উপযোগী শিক্ষায় রূপান্তর শুরু হয়েছে উল্লেখ করেন মন্ত্রী। ১৯৯৬ সাতানব্বই সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশ হাজার প্রোগ্রামার বানানোর প্রচেষ্ট নিয়ে ছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় গত দশ বছরে বাংলাদেশ প্রযুক্তিতে বিস্ময়কর অগ্রগতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। ২০৪১ সালের জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ নির্মাণের পথে এখন বাংলাদেশ বহুদূর এগিয়ে বলেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে বিইউপি ভিসি জনাব এমদাদ-উল- বারি বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন। মন্ত্রী পরে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে প্রযুুক্তির উদ্ভাবন মেলার  স্টল পরিদর্শন করেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

All rights reserved © -2019
IT & Technical Support: BiswaJit