শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার বঞ্চিত করছে চিন ও পাকিস্তান -জাতিসংঘ টেরর ফান্ডি ও আর্থিক দুর্ণীতির অভিযোগে ফের কালো তালিকাভুক্ত হল পাকিস্তান ভারতের আর্থিক বৃদ্ধি আমেরিকা-চিনের থেকেও বেশি -ভারতের অর্থমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ফেরত না যাওয়ার উস্কানি দিচ্ছেন কিছু এনজিও -তথ্যমন্ত্রী সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থানের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে -নৌপ্রতিমন্ত্রী প্রবাসী কর্মীরা যেন সঠিক সময়ে সঠিক সেবা পায় -প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী রাষ্ট্রের শত্রুদের আর বাড়তে দেওয়া যাবে না -মোস্তাফা জব্বার ডেঙ্গু মোকাবিলায় জনগণকেও এগিয়ে আসতে হবে -স্থানীয় সরকার মন্ত্রী অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে হবে -পরিকল্পনামন্ত্রী নড়াইলে হিন্দু সম্প্রদায়ের আরাধ্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সুবিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালী

আগৈলঝাড়ায় এক চিকিৎসক দিয়ে পাঁচ লক্ষাধিক লোকের স্বাস্থ্য সেবা

আগৈলঝাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

আগৈলঝাড়া(বরিশাল)সংবাদদাতাঃ  বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলা ৫০শয্যার হাসপাতালে মুলভবন ঝুকিপূর্ন ও একজন চিকিৎসক দিয়ে চলছে উপজেলার পাঁচ লক্ষাধিক জনগনের স্বাস্থ্য সেবা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চিকিৎসক সংকটের কারণে দুইলাখেরও বেশী জনসংখ্যা অধ্যুষিত আগৈলঝাড়া উপজেলা ও পাশ্ববর্তী গৌরনদী উপজেলার পশ্চিমাংশ, উজিরপুরের উপজেলার উত্তরাংশ ও কোটালীপাড়া উপজেলার পূর্বাংশের অন্তত পাঁচ লক্ষাধিক জনগন চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এলাকার জন সাধারনের চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ১৯৭২ সালে আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা এলাকায় ৩১শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০০৪ সালে ৩১ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটি ৫০ শয্যার হাসপাতালে উন্নীত করা হয়। উপজেলার ৫০ শয্যার এ হাসপাতালের আওতায় ৫টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র (সাব সেন্টার)সহ চিকিৎসকদের ২৬টি পদ রয়েছে। এসকল পদের মধ্যে ২৩জন চিকিৎসকের পদ দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত শূণ্য রয়েছে।

এ ছাড়া হাসপাতালের মুলভবন ঝুকিপূর্ন হয়ে পরেছে। ভর্তি রোগীদের গায়ে মাঝে মধ্যে প্লাস্টার ঘসে পরেছে। একারনে ভয়ে অনেক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হতে অনিহা প্রকাশ করে। ২০১৮সালের ২৮ সেপ্টেম্বর উপজেলা হাসপাতাল পরিদর্শন আসেন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোস্তাক হাসান।

এ সময় হাসপাতালে ডাঃ জ্যোতি রানী বিশ্বাস ও মনন রায় উপস্থিত না থাকায় তাদের শোকজসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার নেয়ার কথা বলেন অতিরিক্ত সচিব মো. মোস্তাক হাসান। তাদের শোকজ করেই কর্মকর্তাদের দায়িত্ব শেষ করেন তারা। ডাঃ জ্যোতি রানী বিশ্বাস মন্ত্রণালয়ে তদবির করে বদলী হয়ে গেছেন এক মাস পূর্বে। বর্তমানে হাসপাতালে ৩জন চিকিৎসক দিয়ে চলছে কার্যক্রম।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. এমএম মনিরুল ইসলাম ব্যস্ত থাকেন জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন অনুষ্ঠান নিয়ে। আরএমও ডাঃ বখতিয়ার আল মামুন একা সব সময় হাসপাতালের আগত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকেন। হাসপাতালের ডেন্টাল ডাক্তার ডা.মনন রায় শুধু দাতের ডাক্তার। সে শুধু দাতঁই দেখেন। চিকিৎসক সংকটের কারনে গৌরনদী হাসপাতালের চিকিৎসক আবদুল্লাহ আল মামুন বর্তমানে আগৈলঝাড়া হাসপাতালে ডেপুটিশনে দিয়েছে উধ্বর্তন কর্মকর্তারা।

একাধিক সূত্র মতে, হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসকদের মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোন্দল আর দলাদলির কারনেও কাংখিত স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেনা রোগীরা। একারনে চিকিৎসকদের হাসপাতালে বদলী করা হলেও তদবির করে তারা অন্য হাসপাতালে চলে যায়। একজন চিকিৎসকের অধীনে ইমারজেন্সিতে ভর্তিকৃত রোগী হাসপাতালের বেডে পরে থাকলেও অন্য চিকিৎসক ওই রোগীকে দেখেন না বলে অভিযোগ রয়েছে। তাদের দ্বন্দ আর কোন্দলের কারণে চিকিৎসাযোগ্য রোগীদেরও উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি না করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেলে রেফার্ট করে আসছেন চিকিৎসকেরা। ফলে অসহায় ও দরিদ্র রোগিদের অর্থ সংকটে পড়তে হয় মহাবিপদে।

এ ছাড়া হাসপাতালের মুলভবন ঝুকিপূর্ন হয়ে পরেছে। ভর্তি রোগীদের গায়ে মাঝে মধ্যে প্লাস্টার ঘসে পরেছে। একারনে ভয়ে অনেক রোগী হাসপাতালে ভর্তি অনিহা প্রকাশ করে। ডাক্তার সংকটের কারনে হাসপাতালে আসা রোগীরা চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এমএম মনিরুল ইসলাম চিকিৎসক শুণ্যতা আর সংকটের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর একজন চিকিৎসক ডেপুটিশনে দিয়েছে। সরকার চিকিৎসক নিয়োগ দিলে আর এই সমস্যা থাকবে না বলে জানান। চিকিৎসকদের মধ্যে কোন দলাদলি নেই বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

All rights reserved © -2019
IT & Technical Support: BiswaJit