২০শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং | ৭ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:৩৩
সর্বশেষ খবর
তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর ঘোষণার ২৪ ঘন্টার মধ্যে পরিবহন সেক্টরের চাঁদাবাজি বন্ধ

সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি বন্ধে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের ঘোষণার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নাটোরের সিংড়া উপজেলার পরিবহন সেক্টরের চাঁদাবাজি বন্ধ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহাতোর নেতৃত্বে রোববার বিকেল ৫টার দিকে নাটোরের সিংড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে শ্রমিক কল্যাণের নামে অবৈধ চাঁদাবাজি বন্ধ করে দেয়া হয়। এসময় সিংড়া বাস টার্মিনাল এলাকায় অটোরিকশা চালকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়কালে নোয়ার হোসেন নামের একজনকে আটক করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, শনিবার বিকেলে সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত নাগরিক সমাবেশে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সিংড়ার সব চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, মাদক এবং জঙ্গিবাদ নির্মূলে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। প্রতিমন্ত্রীর সেই হুঁশিয়ারির ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সব সেক্টরে চাঁদাবাজি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। চাঁদা তোলার বেশকিছু রশিদ জব্দ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন সংগঠনের নাম দিয়ে বাস-ট্রাক, রিকশা, সিএনজি এবং অটোরিকশার চালক-মালিকদের কাছ থেকে চাঁদা তুলে আসছিল একটি গোষ্ঠী। প্রভাবশালী চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হচ্ছিল না। কিন্তু প্রতিমন্ত্রী পলক দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ গ্রহণের পর থেকে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। সিংড়া উপজেলায় আর কেউ অবৈধভাবে যেন পরিবহন খাত থেকে চাঁদা আদায় করতে না পারে সেজন্য সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সিংড়া উপজেলা থাকবে চাঁদাবাজিমুক্ত।

এদিকে, পরিবহন সেক্টরে সব ধরনের চাঁদাবাজি বন্ধ হওয়ায় প্রতিমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সিংড়া মোটর মালিক শ্রমিক নেতারা।মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাসান ইমাম বলেন, সিংড়ায় সব ধরনের চাঁদাবাজি বন্ধ করতে প্রতিমন্ত্রীকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। কোনও গরীব মানুষ যাতে চাঁদার কবলে না পড়ে, সেজন্য সবাইকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শনিবার বিকেল ৫টায় সিংড়া কোট মাঠে উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগ আয়োজিত নাগরিক সমাবেশে প্রতিমন্ত্রী পলক সিংড়ার সাব-রেজিস্ট্রার অফিস ও পরিবহন সেক্টরে চাঁদা আদায় বন্ধ এবং সিংড়া থেকে চাঁদাবাজদের উৎখাত করা হবে বলে ঘোষণা দিয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। তখন চলনবিলের কৃষক আর সাধারণ মানুষকে যে কোনও অনিয়ম ও দুর্নীতির তথ্য জানিয়ে দুর্নীতি নির্মূলে সহায়তা করার জন্য নিজের মোবাইল ফোনের নম্বর (০১৭৬৬৬৯৯৯৯) দেন জুনাইদ আহমেদ পলক। প্রতিমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর সাধারণ মানুষদের মনে স্বস্তি ফিরে আসে। সাধারণ মানুষ এ ধরনের পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Pin It on Pinterest

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial