মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :

ছাতকে গোবিন্দগঞ্জ বর্ণমালা বালিকা বিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হচ্ছে জানুয়ারিতে

ছাতকে গোবিন্দগঞ্জ বর্ণমালা বালিকা বিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হচ্ছে জানুয়ারিতে

হেলাল আহমদ, ছাতকঃ ছাতকে ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে গোবিন্দগঞ্জে বর্ণমালা গালর্স হাইস্কুল নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বৃহত্তর গোবিন্দগঞ্জ এলাকায় গালর্স বা বালিকা বিদ্যালয় না থাকায় অনেক মেধাবি শিক্ষার্থীরা অসময়ে ঝড়ে পড়ছে।

তাছাড়া ছেলেদের চেয়ে মেয়েরা লেখা-পড়ায় অনেক আগ্রহ রয়েছে এখানে। এসব চিন্তা-চেতনা নিয়ে এলাকার জনপ্রতিনিধি, প্রবাসী, সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগিদের উদ্যোগে গোবিন্দগঞ্জে বর্ণমালা গালর্স হাইস্কুলের যাত্রা শুরু হচ্ছে।

জানা যায়, শিল্পনগরি ছাতক উপজেলায় বিভিন্ন এলাকায় অসংখ্য উচ্চ বিদ্যালয় স্থাপন হলেও পৌর শহর ছাড়া কোথাও গড়ে উঠেনি গালর্স হাইস্কুল। উপজেলার দোলারবাজারের শরিষপুর ও গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের দিঘলী মহিলা দাখিল মাদরাসা স্থাপিত হলেও এসব গুরুত্বপূর্ন এলাকায় গড়ে উঠেনি গালর্স হাইস্কুল। বালিকাদের শান্তি শৃঙ্খলা মতো নিরিবিলি পরিবেশে লেখা-পড়ার সুযোগ করে দেয়ার জন্য বৃহত্তর গোবিন্দগঞ্জবাসীর গালর্স হাইস্কুলের চাহিদা ছিল অনেক দিনের।

কিন্তু এ চাহিদাটুকু কেউ পূরণ করতে এগিয়ে আসেনি। অবশেষে এখানে বর্ণমালা গালর্স হাইস্কুল প্রতিষ্ঠা করার পরিকল্পনা হাতে নিলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রবাসী ও এক ঝাঁক তরুন সমাজসেবী-শিক্ষানুরাগিরা। এলাকার বালিকাদের মেধাবি করে গড়ে তুলতে এবং নিরিবিলি পরিবেশে লেখা-পড়ার জন্য সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের গোবিন্দগঞ্জস্থ আমিন ফিলিং ষ্টেশনের পশ্চিমের আসকর আলীর তিনতলা ভবনটি প্রাথমিক অবস্থায় নির্ধারণ করা হয়। প্রথম বছর ৬ষ্ট শ্রেণি পর্যন্ত ভর্তি ও লেখা-পড়ার সুযোগ থাকছে।

জিপিএ-ফাইভ প্রাপ্ত ছাত্রীদের জন্য ভর্তি ফ্রি ও সকল ছাত্রীদের স্কুল ড্রেস প্রতিষ্ঠান গ্রহণ করবে। ইতোমধ্যে শিক্ষক নিয়োগসহ যাবতীয় সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে। ডিসেম্বরে সব কিছু টিক-টাক থাকলে ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ক্লাস শুরু হবে।

এ ব্যাপারে গোবিন্দগঞ্জ বর্ণমালা গালর্স হাইস্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য, সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগি আবদুস শহিদ মুহিত বলেন, ছাতক ছাড়াও বিশ^নাথ ও সিলেট সদরের অংশিক এলাকার মেয়ে শিক্ষার্থীরা গোবিন্দগঞ্জের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখা-পড়া করছে।

এদের মধ্যে অনেকেই গালর্স বা বালিকা হাইস্কুলে লেখা-পড়ার আগ্রহ প্রকাশ করে আসছে। তাই এসব চিন্তা করে তারা গোবিন্দগঞ্জে বর্ণমালা গালর্স হাইস্কুল নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনের মাধ্যমে এলাকায় শিক্ষার গুনগতমান বৃদ্ধির উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তিনি আরো বলেন, গোবিন্দগঞ্জ বর্ণমালা গালর্স হাইস্কুল পরিচালনা করার জন্য ইতোমধ্যে একটি পরিচালনা পর্ষদ গঠন করা হয়েছে। এ পর্ষদের দায়িত্বশীল শিক্ষানুরাগিরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে ব্যাপক ভাবে কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit