বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন

এসএমই মডেল অনুসরণ করে বাংলাদেশ দ্রুত উন্নত দেশে পরিণত হতে পারে

জাতীয় অর্থনীতিতে এসএমই এর ভূমিকা

জাপানের সমৃদ্ধ অর্থনীতির জাগরণ হলো ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প তথা এসএমই বিকাশের ফলাফল। এখনও জাপানের বৃহৎ শিল্পের মূল শক্তি হলো এসএমই এর  লিংকেজ প্রতিষ্ঠান। তাই জাপানের এসএমই মডেল অনুসরণ করে বাংলাদেশ দ্রুত উন্নত দেশে পরিণত হতে পারে।

বুধবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম চেম্বারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে জাতীয় অর্থনীতিতে এসএমই এর ভূমিকা শীর্ষক সেমিনারে এসব কথা বলেন বক্তারা।

সেমিনারে জাইকার চীফ রিপ্রেজেন্টেটিভ হিতোশি হিরাতা বলেন, ঢাকা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারকে নিয়ে জাপানের অনেক বড় অর্থনৈতিক পরিকল্পনা রয়েছে, যা বিগ-বি(বে অব বেংগল ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্রোথ বেল্ট) এর সঙ্গে সম্পর্কিত। জাপান বিশ্বাস করে দক্ষিণ এশিয়ায় বাণিজ্যিক উত্থান পর্বের এ সময়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই উপযুক্ত সময়। যেখানে এসএমই ব্যবসা বড় ভূমিকা রাখতে পারে। এতে লাখো কর্মসংস্থানের পাশাপাশি পুঁজির ব্যাপক বিকাশ হবে। জাপান বাংলাদেশে এসএমইতে টেকনিক্যাল সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।

চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম বিনামূল্যে জাইকাকে  ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে অফিস করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, চট্টগ্রামে ইকনমিক জোনে জাপান সহজেই নিজস্ব ইপিজেড করতে পারে এবং তাদেরকে সবরকমের সরকারি-বেসরকারি সহযোগিতা দেয়া হবে। ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন ফর স্মল অ্যান্ড মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজেস ইন এশিয়া (আইকোসা) এর এই সেমিনারের যৌথ আয়োজনে ছিল জাপান বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, বাংলাদেশ এওটিএস এলুমনি সোসাইটি, চট্টগ্রাম এওটিএস এলুমনি সোসাইটি এবং চট্টগ্রাম  চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। সেমিনারে ব্যবসায়ীদের মতামত পর্ব সঞ্চালনায় ছিলেন জাপান বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রেসিডেন্ট সালাহ্উদ্দিন কাশেম খান। চট্টগ্রামে জাপানের অনারারি কনসাল জেনারেল  মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম তার স্বাগত বক্তব্যে তৃণমূল পর্যায়ে বিশেষ করে পার্বত্য চট্টগ্রামের মতো পশ্চাৎপদ এলাকায় এসএমই এর প্রয়োজনীয়তাকে গুরুত্ব দেন।

সেমিনারে প্রজেক্টর শোর মাধ্যমে এসএমই বিষয়ক গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইকোসার চেয়ারম্যান নাউহিরো কোরোসি, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এনআরবির সাবেক চেয়ারম্যান ড. আবদুল মজিদ,  চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সেলিম উদ্দিন, অধ্যাপক ড. সালেহ জহুর। ড. আবদুল মজিদ জাপানের নয়টি এসএমই বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশর প্রেক্ষিতে এসএমই বিশ্ববিদ্যালয় ও দক্ষ ব্যাংকিং সেবা প্রতিষ্ঠার সুপারিশ করেন।

সেমিনারে এওটিএস এর সাবেক প্রেসিডেন্ট মোয়াজ্জেম হোসেন, ফিরোজ শাহ, বর্তমান প্রেসিডেন্ট সাইফুদ্দিন আহমেদসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী ফোরামের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit