শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
প্রকৌশলীদের সততা ও স্বচ্ছতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে -গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী কৃষকের কল্যাণে সরকার -কৃষিমন্ত্রী প্রতিমা ভাঙচুরের সময় ধরা পড়ে পুলিশে হস্তান্তর শার্শায় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিনের নিজস্ব অর্থায়নে মসজিদে টাকা প্রদান  ব্লাড ব্যাংক অফ কালীগঞ্জ এর আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্টিত জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রবীর সিকদারের বিচারের দাবীতে ফরিদপুরের কর্মরত সাংবাদিকদের মানববন্ধন গ্রাম আদালতের বিচার পেয়ে খুশী রেনু মিয়া Fuad’s ‘Cholo Bangladesh’ for the Tiger fans on ICC World Cup 2019 বিশ্বকাপে টাইগার ভক্তদের জন্য ফুয়াদের “চলো বাংলাদেশ” কামারখালী ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ও ইফতার মাহফিল

ভোলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে আ’লীগ নেত্রীর মানহানি মামলা দায়ের

কামরুজ্জামান শাহীন,ভোলা॥  বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ৭১টিভির টকশোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তি করায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে এবার ভোলার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ৫০কোটি টাকার মানহানির মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে ভোলা জেলা যুব মহিলা লীগের আহবায়ক ও নারী নেত্রী খাদিজা আক্তার স্বপ্না বাদি হয়ে মামলাটি করেন। দায়িত্বরত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরিফ মো. ছানাউল হক কোন প্রকার ওয়ারেন্ট ও সমন না দিয়ে মামলাটি জুডিসিয়াল তদন্তের আদেশ দেন।

মামলাটি দায়েরে সার্বিক সহয়তা করেন ভোলা জেলা আ’লীগের ত্রান ও সমাজকল্যান বিষয়ক সম্পাদক সফিকুল ইসলাস সফি।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে ৭১ টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন একাত্তর জার্নালে রাজনৈতিক সংবাদের বিশ্লেষণ চলছিল। এ সময় ব্যারিস্টার মইনুলের কাছে মাসুদা ভাট্টির প্রশ্ন ছিল, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি আলোচনা চলছে, সদ্য গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে জামায়াতের প্রতিনিধিত্ব আপনি করছেন কি-না?’ এর জবাবে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন বলেন, ‘আপনার দুঃসাহসের জন্য ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি ‘চরিত্রহীন’ বলে আমি মনে করতে চাই।’
তার এ কটূক্তি মানহানিকর। যা টেলিভিশন লাইভে সমগ্র নারী জাতীকেই সম্মানহানি করেছে। তাই মামলাটিতে ৫০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।

বাদী আ’লীগ নেত্রী খাদিজা আক্তার স্বপ্নার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন এপিপি শোয়েব হোসেন মামুন, সিনিয়র আইনজীবী জাহাঙ্গীর আলম, নারী-শিশু পিপি গোলাম মোর্শেদ কিরণ তালুকদার, এপিপি মেজবাহুল আলম ও এ্যাডভোকেট ফিরোজ শাহ।
মামলার বাদী খাদিজা আক্তার স্বপ্না জানান, একাত্তর টেলিভিশনে ব্যারিস্টার মইনুল নারী সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে যে গালি দিয়েছেন আমি মনে করি সমগ্র নারীদের জন্য এটা অপমানকর। এ রকম ঘটনা যেনো ভবিষ্যতে আর না হয় এ জন্য আমি সংক্ষুব্দ হয়ে মামলাটি করেছি।

এ.পি.পি. শোয়েব হোসেন মামুন জানান, আমরা চেয়েছিলাম এ মামলায় আসামীর ওয়ারেন্ট হয়। কিন্তু বিজ্ঞ আদালত মনে করেছেন মামলাটি জুডিসিয়াল তদন্ত হয়ে আসুক, তার পর ব্যবস্থা নিবে। আমরা আদালতের আদেশের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। দেখা যাক আগামী ২৫ অক্টোবর মামলার পরবর্তী দিন ধার্য তারিখে কি হয়। আশা করি আমরা সুবিচার পাবো।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit