১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১১:৩৮
সর্বশেষ খবর

হাতুরে ডাক্তারদের বিষয়ে রোগীদের সচেতন হওয়ার আহ্বান -প্রতিমন্ত্রী মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা

আমির সোহেলঃ “জীবাণুবাহিত চর্ম রোগের যথার্থ নিয়ন্ত্রণে গবেষণা ও চিকিৎসা সেবায় মনোনিবেশ” ” অপচিকিৎসা, অবৈজ্ঞানিক ওষুধ সেবনের কারণে রোগীর যেমন ক্ষতি হয়, তেমন রোগীর শরীরে ওষুধের কার্যকারিতা হ্রাস পাওয়ায় রোগ নিরাময় কঠিন হয়ে পড়ে” এই স্লোগানকে সামনে রেখে চর্মরোগ বিষয় অগ্রগতির বৈজ্ঞানিক সেমিনার।

আজ রবিবার দুপুর ১২টায বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চর্ম ও যৌনব্যাধি বিভাগের উদ্যোগে ঢাকা ক্লাবের স্যামসন এইচ চৌধুরী লাউঞ্জে চর্মরোগ বিষয়ে সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়ে বৈজ্ঞানিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক- এমপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্হানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা- এমপি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ মশিউর রহমান রাঙ্গা, এমপি  হাতুরে ডাক্তারদের বিষয়ে রোগীদের আরো বেশি সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ ডার্মাটোলজিক্যাল সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক এ কিউ এম সেরাজুল ইসলাম, মহাসচিব অধ্যাপক এহসানুল কবির জগলুল।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ইউনিমেড ইউনিহেলথ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মোসাদ্দেক হোসেন। অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিল বৈজ্ঞানিক সেশন। বৈজ্ঞানিক সেকশন প্যানেল এক্সপার্ট হিসেবে ছিলেন অধ্যাপক এজেডএম মাইদুল ইসলাম, অধ্যাপক এম এ ওয়াদুদ, অধ্যাপক এম ইউ কবির চৌধুরী, অধ্যাপক আগা মাসুদ চৌধুরী, অধ্যাপক মোঃ আকরাম উল্লাহ সিকদার, অধ্যাপক এম এ রউফ। গুরুত্বপূর্ণ প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক এম এ ওয়াহাব, সহযোগী অধ্যাপক ডা. অসিম কুমার নন্দী, ডা. দীপক কুমার দাস, সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোঃ রফিকুর মওলা, সহকারী অধ্যাপক ডা. তুষার কান্তি সিকদার।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক এমপি বলেন, চিকিৎসার ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের আমলে ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ১২ হাজার চিকিৎসক, ১৫ হাজার নার্স ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক স্বাস্থ্য সহকারী নিয়োগ দিয়েছে। দেশের মানুষকে আরো উন্নত সেবা প্রদান করতে গত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং তারিখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে “সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল”-এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন। গণমানুষকে সেবা দিতে বর্তমান সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তৃণমূল্য স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতেই বর্তমান সরকার গ্রামেগঞ্জে আবারো কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করেছে।

সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের সম্মানিত সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, চিকিৎসার বিষয়ে রোগী বা তাঁদের স্বজনদের কোনো অভিযোগ থাকলে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) অথবা বাংলাদেশ মেডিক্যাল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি)কে জানাতে অনুরোধ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য ও চর্ম ও যৌনব্যাধি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গীকার এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ তৈরির ক্ষেত্রে আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। আজকের বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে। অবকাঠামোগত উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসহ অন্যান্য সেবাখাতেও আমরা অনেক অগ্রতি লাভ করেছি। শিশু মৃত্যু হার কমেছে, মাতৃ মৃত্যু হার কমেছে, গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক চালু হয়েছে, গড় আয়ু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২ বছরে। কিন্তু বাংলাদেশে এখনও স্বাস্থ্যখাতে অনেক আরাধ্য কর্ম আমাদেরকে অব্যাহত গতিতে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। উন্নয়নের সাথে সাথে কিছু পরিবেশগত পরিবর্তন হয়। যার সাথে রোগের লক্ষণ ও চরিত্রও পাল্টায়। সমসাময়িক রোগ সম্পর্কে আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষণার সকল মেধাকে কাজে লাগিয়ে বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদেরকে সুস্থ সবল জাতি গড়ে তুলতে হবে। কারণ উন্নয়নের জন্য পূর্বশর্ত হলো সুস্থ, সবল ও প্রশিক্ষিত জনবল। বাংলাদেশে চর্ম রোগের ক্ষেত্রে আধুনিক চিকিৎসার মাধ্যমে অনেক সাফল্য অর্জন করা ইতোমধ্যেই সম্ভব হয়েছে।

মনে রাখতে হবে, সোরিয়াসিস, লেপরোসিস (কুষ্ঠরোগ)সহ অন্যান্য জীবাণুবাহিত চর্ম রোগের যথার্থ নিয়ন্ত্রণ অতীব জরুরী। তার জন্য প্রয়োজন চর্ম রোগ বিশেষজ্ঞদের নিরন্তর গবেষণা ও চিকিৎসা সেবায় মনোনিবেশ। আজকের এই বৈজ্ঞানিক সেমিনার সেই লক্ষ্য পূরণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। রোগের কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসার ক্ষেত্রে আরও বেশি জনসচেতনতা তৈরি করতে হবে। সেক্ষেত্রে প্রিন্ট, অনলাইন এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ খুবই ফলপ্রসূ ভুমিকা পালন করতে পারেন। আমার বিশ্বাস, এক্ষেত্রে চিকিৎসক এবং মিডিয়ার সম্মানিত সাংবাদিকগণ সম্মিলিতভাবে কাজ করে যাবেন এবং বাংলাদেশের সাধারণ জনগোষ্ঠীকে স্বল্পমূল্যে ও সহজে উন্নত চিকিৎসা সেবাদানের বিষয়টি নিশ্চিত করতে সক্ষম হবেন।

বৈজ্ঞানিক সেশনে অত্যাধুনিক ডার্মাটোলজি সার্জারী, বাংলাদেশের রোগীদের মধ্যে সোরিয়াসিস রোগের প্রবণতা বিষয়ক গবেষণার ফলাফল, কুষ্ঠ রোগের জটিলতা ও চিকিৎসার সর্বশেষ অবস্থা, ছত্রাক জাতীয় চর্ম রোগের চিকিৎসা ইত্যাদি তুলে ধরা হয়। সোরিয়াসিস রোগের প্রবণতা বিষয়ক গবেষণার ফলাফলে জানানো হয়, বাংলাদেশের প্রতি এক হাজার জনে সাতজনের এই রোগের প্রবণতা রয়েছে। কুষ্ঠ রোগের ক্ষেত্রে জানানো হয়, বাংলাদেশে বর্তমানে কুষ্ঠ রোগের কার্যকর চিকিৎসা রয়েছে। ছত্রাক জাতীয় চর্ম রোগের চিকিৎসা, লেজারের মাধ্যমে চিকিৎসা ও কসমেটিক সার্জারীর ক্ষেত্রে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের আরো সচেতন ও সতর্ক হতে হবে এবং রোগীদেরকে যৌক্তিকভাবে চিকিৎসা সেবা দিতে হবে। অন্যদিকে রোগীরেকেও আরো সচেতন হতে হবে এবং চর্ম রোগ হলে চর্ম রোগ বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবন করা যাবে না। বর্তমানে দেখা যাচ্ছে, অপচিকিৎসা, ভুল চিকিৎসা, হাতুড়ে ডাক্তারের চিকিৎসা এবং অবৈজ্ঞানিক ওষুধ সেবনের কারণে কিংবা অপ্রয়োজনীয় লেজার সার্জারীর কারণে রোগীর অনেক ক্ষতি হয়, এমনকি রোগীর শরীরে ওষুধের কার্যকারিতা হ্রাস পাওয়ায় রোগ নিরাময় কঠিন বা অসম্ভব হয়ে পড়ে। এই সমস্যাসমূহ চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের সম্মলিত কর্মকান্ডের মাধ্যমে রোগীদের কল্যাণে নিরসন করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) ও চর্ম ও যৌনব্যাধি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.