বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
সু-প্রভাত ও জাবালে নূর পরিবহনের সব বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ৩৭তম বিসিএসে উত্তীর্ণদের নিয়োগে প্রজ্ঞাপন জারি মেহেরপুরে নাশকতা মামলায় বিএনপির ২০ নেতা-কর্মী কারাগারে মেহেরপুরে জাতীয় নজরুল সম্মেলন উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মেহেরপুরে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে নজরুল সম্মেলন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন নবীগঞ্জে ২ মাদক ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের ৩ মাসের জেল জরিমানা যক্ষ্মা রোগের যুগপোযোগী ওষুধ উদ্ভাবনের প্রতি গুরুত্বারোপ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদ্মা সেতুতে যুক্ত হতে চলেছে নবম স্প্যান

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সরকারী এম ইউ ডিগ্রী কলেজ পদত্যাগকৃত ৩ শিক্ষক পুনরায় অবৈধপন্থায় বহালের চেষ্টা

কালীগঞ্জে সরকারী এম ইউ ডিগ্রী কলেজ

স্টাফ রিপোর্টার,ঝিনাইদহ প্রতিনিধি॥  ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সরকারী মাহতাবউদ্দীন ডিগ্রী কলেজে পদত্যাগকৃত তিন শিক্ষক ৩ অবৈধভাবে পুনরায় স্বপদে বহালের চেষ্টা চালাচ্ছে। অভিযোগে জানা গেছে, গত ২০১২ সালে প্রভাষক শামীমা পারভীন রাষ্ট্র বিজ্ঞান, ২০১১ সালে প্রভাষক সরাফত হোসেন পরিসংখ্যান ও ২০১২ সালে প্রভাষক বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগে এম ইউ কলেজে যোগদান করেন।

যোগদানের পর থেকেই তাদের বিরুদ্ধে কর্তব্য অবহেলা ও অনিয়মের অভিযোগে ওঠে। সে সময়ে তৎকালীন অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমানকে ম্যানেজ করে প্রভাষক শামীমা পারভিন ও বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে, সরাফত হোসেন চট্রাগ্রাম হালি শহর ক্যাঃ পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে যোগদান করেন। এবং তারা একই সাথে দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করে বেতন ভাতা নিতেন। এনিয়ে জাতীয় বিভিন্ন পত্র প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর ২০১৬ সালে তিন শিক্ষককে কলেজে পরিচালন পর্ষদের চাপের মুখোমুখি পড়তে হয়। অবশেষে অভিযুক্তরা অত্র কলেজের চাকুরী ছেড়ে দিতে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ মন্ডলের নিকট পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছিলেন।

এ বিষয়টি কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে অবহিত করেন। তিনি এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে নির্দেশ দেন। এ প্রেক্ষিতে ২০১৭ সালে ১৭ আগস্ট পরিচলন পর্ষদের এক সভায় তিন শিক্ষকের পদত্যাগ পত্র গৃহিত হয়। কিন্তু ২০১৮ সালের ৮ আগস্ট কলেজটি সরকারিকরন হওয়ায় উক্ত তিন শিক্ষক পুনরায় স্ব পদে বহাল হতে বিভিন্ন মহলে চেষ্টা তদবির করে যাচ্ছেন। এবং বিষয়টি নিয়ে একটি মহল মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পদত্যাগ পত্র গ্রহনের রেজুলেশন তথ্য গোপন করে বিভিন্ন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের নিকট দেনদরবার করে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ মন্ডল ওই তিন শিক্ষকের আগেই পদত্যাগ করেছিল বলে স্বীকার করে বলেন, পুনরায় স্ব পদে বহাল রাখার কোন সুযোগ আছে কি না তার জানা নেই।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit