বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ০৯:১২ পূর্বাহ্ন

ভারত থেকে আরও ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনছে বাংলাদেশ

ভারত থেকে আরও ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে ৩০০ মেগাওয়াট কেনা হচ্ছে সরকারি খাত থেকে। বেসরকারি পর্যায়ে কেনা হবে ২০০ মেগাওয়াট।

আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সরকারি খাতের ৩০০ মেগাওয়াট সরবরাহ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। বাকি ২০০ মেগাওয়াট শিগগিরই আমদানি করা হবে।

পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি (পিজিসিবি) সূত্রে জানা গেছে, সোমবার প্রথম প্রহর থেকেই ৩০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর থেকে আন্তঃদেশীয় সঞ্চালন লাইনের মাধ্যমে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে।

তবে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে এদিন বিকেল পৌনে ৫টায়।

নতুন ৫০০ মেগাওয়াটের ৩০০ মেগাওয়াট সরবরাহ করবে ভারতের সরকারি প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল থার্মাল পাওয়ার প্ল্যান্ট (এনটিপিসি)। এনটিপিসির সঙ্গে এরইমধ্যে পিডিবির চুক্তি সই হয়েছে।

বাকি ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আসবে দেশটির বেসরকারি খাতের বিদ্যুৎ আমদানি-রফতানির জন্য নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান পাওয়ার ট্রেডিং করপোরেশনের (পিটিসি) মাধ্যমে। পিটিসির সঙ্গে এখনও চুক্তি সই হয়নি। তাই এই বিদ্যুৎ আসতে আরও কয়েকদিন অপেক্ষা করতে হবে।

গত ১১ এপ্রিল সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি ভারত থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেনার প্রস্তাব অনুমোদন করে। এর আওতায় আগামী বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্বল্পমেয়াদে এবং ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০৩৩ সালের ৩১ মে পযন্ত দীর্ঘমেয়াদে বিদ্যুৎ আমদানি করা হবে।

এনটিপিসি থেকে কেনা বিদ্যুতের মূল্য হবে স্বল্পমেয়াদে প্রতি ইউনিট চার টাকা ৭১ পয়সা এবং দীর্ঘমেয়াদে ছয় টাকা ৪৮ পয়সা। পিটিসির সরবরাহ করা বিদ্যুতের ইউনিটপ্রতি দর স্বল্পমেয়াদে চার টাকা ৮৬ পয়সা ও দীর্ঘমেয়াদে ছয় টাকা ৫৪ পয়সা ধার্য হয়েছে।

২০১৩ সালে ভারত থেকে বিদ্যুৎ আমদানি শুরু হয়।

 

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit