১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:২৯
সরকার নিয়ন্ত্রিত নির্বাচন, রেফারির ভূমিকায় নির্বাচন কমিশন, নির্বাচন কমিশন, সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার, সুজনের সংবাদ সম্মেলন, সুশাসনের জন্য নাগরিক, কেমন জনপ্রতিনিধি পেলাম, সুজন

সরকার নিয়ন্ত্রিত নির্বাচনে রেফারির ভূমিকা পালন করবে নির্বাচন কমিশন

বিশেষ প্রতিবেদকঃ ‘সরকার নিয়ন্ত্রিত নির্বাচন করতে চায়। নিয়ন্ত্রিত নির্বাচনের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের মাঠ ছাড়া করার প্রথম পদক্ষেপ শুরু হয়ে গেছে। আমরা আশা করি নির্বাচন কমিশন রেফারির ভূমিকা পালন করবে।’ বললেন সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এর সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সুজন আয়োজিত ‘রাজশাহী ও সিলেট সিটি করপোরেশনে কেমন জনপ্রতিনিধি পেলাম’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে আজ বুধবার তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সুজন সম্পাদক বলেন- ‘বর্তমান কমিশন এরই মধ্যে বিভিন্ন প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছে। পাঁচ সিটি নির্বাচন তারা সুষ্ঠু করতে পারেনি। প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছিলেন, নির্বাচনে যে অনিয়ম হবে না তা বলা যায় না। তার বক্তব্যেই বোঝা যায় অনিয়ম হবে এমন একটি স্ট্যান্ডার্ড সৃষ্টি হয়েছে। এ নীতি অব্যাহত থাকলে আগামী জাতীয় নির্বাচনও নিয়ন্ত্রিত হবে।’

বদিউল আলম আরও বলেন- সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সরকার সিল মারার ক্লাসিক গেম খেলেছে। এসব করেও কোথাও কোথাও তারা পরাজিত হয়েছে৷ সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ন্ত্রিত নির্বাচনের জলন্ত উদাহরণ।

সংবাদ সম্মেলনে সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বিজয়ী প্রার্থীদের বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরে বলেন- আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে সকল রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে নির্বাচন কমিশনকে একটি জাতীয় সনদ বা সমঝোতা স্মারক করতে হবে। যেখানে নির্বাচনের আগে, পরে এবং নির্বাচনকালীন সময়ে কোন ধরনের পরিবেশ পরিস্থিতি থাকবে, কার কোন ধরনের ভূমিকা থাকবে এবং সনদের শর্ত ভঙ্গ করলে কী হবে তা উল্লেখ থাকতে হবে।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.