১৭ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:৩২
সর্বশেষ খবর
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটটির মাধ্যমে বিটিভি সম্প্রচার

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটটির মাধ্যমে বাংলাদেশ টেলিভিশন(বিটিভি) সম্প্রচার শুরু

বাংলাদেশের জন্য গর্ব বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক ব্যবহার শুরু হচ্ছে শিগগির। এরইমধ্যে স্যাটেলাইটিতে থেকে সুফল ঘরে আসতে শুরু করেছে। দেশের সরকারি সম্প্রচার মাধ্যম  বাংলাদেশ টেলিভিশন- বিটিভি প্রথমবারের মতো স্যাটেলাইটটির মাধ্যমে টিভি সম্প্রচার শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে সুদূর আকাশে উড়াল দেয়ার  প্রায় সাড়ে ৩ মাস পর এ সফলতা আসলো।

বিষয়টি আরটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ।

তিনি বলেন, বিমসটেক সম্মেলন নিয়ে গত পরশু দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রেস ব্রিফিং সম্প্রচারের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের টিভি সম্প্রচার শুরু হয়। প্রথমবারের মতো ওই অনুষ্ঠানের ডাউনলিঙ্ক করা হয়। আর আজকে দক্ষিণ এশীয় ফুটবল ফেডারেশন (সাফ)চ্যাম্পিয়নশিপ সম্প্রচার হবে। দেশের বেসরকারি টিভি চ্যানেল নাইন ডাউনলিঙ্ক করবে। বিটিভিতেও তা প্রচার করা হবে।

কিন্তু কেন বিষয়টি গণমাধ্যমে জানানো হয়নি- প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, পুরোপুরি টেস্ট করার জন্য আমরা কাউকে কিছু বলিনি। তবে এখন প্রমাণিত যে- দেশের গর্ব বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমেই টিভি সম্প্রচার শুরু হয়েছে।

গত ১২ মে বাংলাদেশ সময় মধ্যরাতে মহাকাশ পানে তীব্র গতিতে ছুটে যায় বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে উৎক্ষেপণের ১০ দিন পর তার নিজস্ব অবস্থানে (অরবিট স্লট) পৌঁছে। গত সাড়ে ৩ মাস ধরে তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেসের কাছ থেকে কেনা হলেও এটি পরিচালিত হবে গাজীপুর ও রাঙামাটির বেতবুনিয়া গ্রাউন্ড স্টেশন থেকে। এর জন্য মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের একটি প্রতিনিধি দলকে প্রশিক্ষিত করে প্রস্তুত করা হয়েছে। তবে মূল তত্ত্বাবধানে প্রথম তিন বছর সহায়তা করবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানটি।

প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, স্যাটেলাইটটি প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ হাজার কিলোমিটার উচ্চতায় একবার পৃথিবী পরিক্রমণ করবে।

বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, আমাদের স্যাটেলাইট তার অবস্থান নিয়েছে এবং স্বাভাবিকভাবেই কাজ শুরু করেছে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পর্কে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমাদের জাতীয় গর্ব বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করেছি। এটি সফলভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে।  অত্যন্ত সৌভাগ্যের বিষয় এখন পর্যন্ত এখানে এক চুল পরিমাণ ত্রুটি আমরা পাইনি।

এদিকে দেশের প্রথম এই কৃত্রিম উপগ্রহ ব্যবহারে প্রথমবারের মতো নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক ও চুক্তিসই করেছে বিসিএসসিএল। এই চুক্তির মাধ্যমে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন সংস্থার অধীনস্থ বন্দর, ফেরিঘাট, জাহাজ ও অন্যান্য স্থাপনায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ থেকে প্রয়োজনীয় সেবা দেয়া হবে।

প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে এই স্যাটেলাইট প্রকল্পের বাস্তবায়ন হচ্ছে। এই স্যাটেলাইটে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার থাকবে, যার ২০টি বাংলাদেশের ব্যবহারের জন্য রাখা হবে এবং বাকিগুলো ভাড়া দিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব হবে।

সরকার আশা করছে, এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে বিদেশি স্যাটেলাইটের ভাড়া বাবদ বছরে ১৪ মিলিয়ন ডলার সাশ্রয় হবে বাংলাদেশের। সেই সঙ্গে নেপাল, ভুটানের মতো দেশের কাছে  ভাড়া দিয়ে বছরে বড় অংকের টাকা অর্জন করা যাবে।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.