১৯শে আগস্ট, ২০১৮ ইং | ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৭:১৮
সর্বশেষ খবর
সাংবাদিক দোলন

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে আসছেন শেখ হাসিনা-সাংবাদিক দোলন

আবু নাসের হুসাইন, সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি: বাংলাদেশ কৃষক লীগের সহ-সভাপতি, ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য, ফরিদপুর-১ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশী ঢাকা টাইমসের সম্পাদক আরিফুর রহমান দোলন বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই আমরা ভালো আছি এবং ভবিষ্যতে আরও ভালো থাকার স্বপ্ন দেখি। ঘাতকেরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে মনে করেছিল তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হত্যা করেছে। কিন্তু তারা তা পারেনি।

রবিবার সকালে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার কাটাগড় দেওয়ান শাগীরশাহ দাখিল মাদ্রাসা মিলনায়তনে নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে চশমা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করে দোলন আরো বলেন, ‘আগস্ট মাস হচ্ছে শোকের মাস। আমরা যে ভালো আছি এই ভালো থাকা হতো না যদি স্বাধীন বাংলাদেশ সৃষ্টি না হতো। স্বাধীনতার জনককে এই আগস্ট মাসে ১৪ আগস্ট কালরাতে হত্যা করেছিল ঘাতকেরা। শুধু তাকেই নয়, তার পরিবারের প্রায় সব সদস্যকে হত্যা করেছে। ‘মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে আমাদের কৃতজ্ঞতার ভাষা নেই। কারণ তার দুই কন্যা বিদেশ থাকার কারণে বেঁচে গিয়েছিলেন। তাদের একজন জননেত্রী শেখ হাসিনা এখন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। এই কারণেই আপনারা-আমরা ভালো আছি। নিরাপদে আছি। ‘যদি শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না থেকে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকতো তাহলে দেশে অরাজক-অস্থিতিশীল পরিবেশের সৃষ্টি হতো। কোনো ভালো কাজ করা যেতো না। কারণ আপনারা জানেন, কীভাবে বিএনপির সময়ে জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিল। সারাদেশে একযোগে বোমা বিস্ফোরণ করা হয়েছিল। জঙ্গিরা তাদের অস্তিত্ব জানান দিয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় শেখ হাসিনার ওপর ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা হয়েছিল। সারাজীবন বঙ্গবন্ধু মানুষের সেবা করে গেছেন।

মানুষের সেবা করতে গিয়ে নিজের জীবনটাও দিয়ে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর সেই সোনার বাংলা গড়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কত কষ্টই না করছেন।’ ‘শেখ হাসিনা চাচ্ছেন, বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ, খেটে খাওয়া মানুষ, মেহনতি মানুষ তাদের যেন কোনো অভাব ও কষ্ট না থাকে। এ কারণে, বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা চালু করেছেন। এছাড়া ভিজিএফ দেয়া হয়। এরকম আরও অনেক সুবিধা দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ হলো ঘুষমুক্ত, দালালমুক্ত, দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গঠন করা। শেখ হাসিনা এমনই সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে চান। এই পথে তারাই বাধা যারা এগুলো মানেন না।’ ‘যত বড় নেতাই হোন না কেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করতে হলে বঙ্গবন্ধু যেভাবে জীবনযাপন করে গেছেন, যেভাবে জীবন যাপন করতে বলে গেছেন সেটি মানতে হবে। সেটি না মানলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হওয়া যাবে না।’

আরিফুর রহমান দোলন আরো বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকার আপনাদের জন্য অনেক কিছুই করছেন। যদি আপনাদের কাছে সেটি না পৌঁছায় তাহলে যাদের ভোট দিয়েছেন তাদের জিজ্ঞাসা করবেন।’ ‘শেখ হাসিনা যে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে চান সেই বাংলাদেশে কারো কোনো অভাব অভিযোগ দুঃখ কষ্ট থাকবে না। সেই বাংলাদেশ গড়তে হলে এই সমস্ত দালালমুক্ত করা দরকার। প্রতিটি আসনে সৎ নেতাদের মনোনয়ন দেয়া দরকার। প্রধানমন্ত্রী নিজেই এমন কথা জানিয়েছেন।

উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে দোলন বলেন, ‘আপনাদের টাকায় পদ্মা সেতু হচ্ছে। সারাদেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হচ্ছে। এ কারণে শেখ হাসিনাকে সহযোগিতা করা, তাকে সমর্থন করা এবং তাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত করা আমাদের দায়িত্ব।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা কৃষক লীগের সদস্য সচিব শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, বোয়ালমারী উপজেলা কৃষক লীগের আহ্বায়কসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.