রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
শ্রীকৃষ্ণের মধুর হরি নামে নূতন রূপে প্লাবিত হল কক্সবাজার কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার স্বঘোষিত ধর্মগুরু আজম বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান বিগত সাক্ষাৎকারের ফলাফল সড়ক দুর্ঘটনা রোধে মেহেরপুরে অবৈধ ও অনিবন্ধিত যানবাহন আটক মেহেরপুরে হেল্প ফাউন্ডেশনের ইউথ ডেভেলপমেন্ট শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামের রৌমারীর উপজেলার অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে পূর্বাচলে হবে অত্যাধুনিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম -ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়নে সমগ্র বিশ্বের প্রশংসা– তথ্যমন্ত্রী প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের জীবন গড়তে হবে -মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে গরুর শিং এর আঘাতে কৃষক নিহত

বরিশালে খুব বাজে অবস্থা, আমরা তদন্ত করে দেখছি -নির্বাচন কমিশনার

নির্বাচন কমিশনার মাহাবুব তালুকদার

‘আমি শুনেছি বরিশালে ভোটকেন্দ্র দখল হয়েছে। সেখানে একজন মেয়র প্রার্থীর সঙ্গে খারাপ আচরণও করা হয়েছে। বিএনপির প্রার্থী ভোট বর্জনও করেছে। আমরা জেনেছি বরিশালে খুব বাজে অবস্থা। আমরা তদন্ত করে দেখছি। এসব বিষয় নিয়ে আমরা কমিশনে আলাপ-আলোচনা করেছি। কমিশন সভায় যে সিদ্ধান্ত হয়, তা পরে জানানো হবে।’ বললেন নির্বাচন কমিশনার মাহাবুব তালুকদার।

সোমবার দুপুরে আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মনিটরিংয়ের দায়িত্বে থাকা এই নির্বাচন কমিশনার এসব কথা বলেন।

আজ সোমবার সকাল ৮টা থেকে রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়। দুপুর ১২টায় বরিশাল প্রেস ক্লাবে এসে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপির মেয়র পদপ্রার্থী মো. মজিবুর রহমান সারোয়ার।

এ সময় তিনি অভিযোগ করে বলেন- ‘সকাল থেকে ৭০-৮০টি কেন্দ্রে আমাদের এজেন্টদের ঢুকতে দেয়া হয়নি। অন্য যেসব কেন্দ্রে পোলিং এজেন্টরা প্রবেশ করেছে, সেখানে সবাই মিলে নৌকা মার্কায় সিল করেছে। এসব কারণেই নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিচ্ছি।’

তার আগে ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী মাওলানা ওবায়দুর রহমান মাহাবুবও সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সরকারি মহাবিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে বাসদের মেয়র প্রার্থী ডা. মনীষা চক্রবর্তী হামলার শিকার হন। মনীষা অভিযোগ করে বলেন- ‘সরকারি মহাবিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখি, সেখানে নৌকা মার্কার পক্ষে জাল ভোট দেয়া হচ্ছে। নৌকা মার্কায় আগে থেকে সিলমারা ব্যালট পেপার দেখতে পাই। তাৎক্ষণিকভাবে এর প্রতিবাদ করলে আওয়ামী লীগের পোলিং এজেন্টরা আমার ওপর চড়াও হয়। এ সময় মারধর করে মেঝেয় ফেলে দেয়। এ ঘটনায় আমার বাঁ হাতে আঘাত লাগে। আমি বরিশাল সিটি নির্বাচন স্থগিত করার দাবি জানাচ্ছি।

এসব অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম জানান- ‘আমি কোনও মন্তব্য করতে চাই না এই ব্যাপারে। তবে আপনাদের কাছে কোনও তথ্য থাকলে আমাদের দিন। আমরা ভোটকেন্দ্র বন্ধ করে দেবো।’

এদিকে কন্ট্রোল রুম থেকে মেজর রাজু আরটিভি অনলাইনকে বলেন- ‘আমরা এখন পর্যন্ত যে খবর পাচ্ছি, তাতে অধিকাংশ কেন্দ্রেই ঝামেলার কথা শুনতে পাচ্ছি।’

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ (নৌকা), বিএনপির মো. মজিবুর রহমান সারোয়ার (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ওবায়দুর রহমান মাহবুব (হাতপাখা), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির আবুল কালাম আজাদ (কাস্তে), বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের মনীষা চক্রবর্তী (মই) ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. ইকবাল হোসেন (লাঙল)।

প্রসঙ্গত, বরিশাল সিটি করপোরেশনে দুই লাখ ৪২ হাজার ৬৬৬ জন ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ২১ হাজার ৪৩৬ ও নারী ভোটার এক লাখ ২০ হাজার ৭৩০ জন। ৩০টি সাধারণ ও ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড রয়েছে। এখানে ১২৩টি ভোটকেন্দ্র ও ৭৫০টি ভোটকক্ষ রয়েছে।

শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দি নিউজ এর বিশেষ প্রকাশনা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

© All rights reserved © 2019  
IT & Technical Support: BiswaJit