২০শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৫ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৩৬
সর্বশেষ খবর
রথযাত্রা শান্তি ও সম্প্রীতি

শান্তি ও সম্প্রীতির বার্তা নিয়ে শুরু হল সনাতন ধর্মালম্বীদের রথযাত্রা

বিশেষ প্রতিবেদকঃ সনাতন ধর্মারলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ঐতিহ্যবাহী রথযাত্রা শান্তি ও সম্প্রীতির বার্তা নিয়ে উদযাপিত হলো।

আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর স্বামীবাগ আশ্রম থেকে রথযাত্রার শোভাযাত্রা শুরু হয়ে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে গিয়ে শেষ হয়। ২২ জুলাই উল্টো রথযাত্রার মধ্য দিয়ে উৎসব শেষ হবে। এ উপলক্ষে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আয়োজিত রথটান, রথের মেলা, ধর্মীয় আলোচনা সভা, প্রার্থনা, পদাবলী কীর্তন, ভাগবতকথা, ধর্মীয় সঙ্গীত, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ধর্মীয় নাটক, বৈদিক নৃত্য, কুইজ প্রতিযোগিতা, প্রসাদ বিতরণসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) ঢাকার জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে নয় দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা শনিবার শুরু হয়। রাজধানীর স্বামীবাগের ইসকন মন্দির প্রাঙ্গণে এদিন সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান। বিশ্বশান্তি ও মঙ্গল কামনায় অগ্নিহোত্র যজ্ঞ ও আলোচনা সভা শেষে দুপুর আড়াইটায় তিনটি সুবিশাল রথে জগন্নাথ দেব, শুভদ্র ও বলরামের প্রতিকৃতিসহ রথ শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রায় বর্ণাঢ্য সাজে সজ্জিত সব বয়সের শত শত নারী-পুরুষ অংশ নেন। রাজধানী সুপার মার্কেট, টিকাটুলী, ইত্তেফাক মোড়, মতিঝিল শাপলা চত্বর, বায়তুল মোকাররম, পুরানা পল্টন, জাতীয় প্রেস ক্লাব, হাইকোর্ট মাজার, রমনা কালীমন্দির, টিএসসি মোড়, জগন্নাথ হল ও পলাশী হয়ে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে গিয়ে শোভাযাত্রাটি শেষ হয়।

ঢাকেশ্বরী মন্দিরে মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির পক্ষে ডালা সাজিয়ে রথকে বরণ করে নেওয়া হয়।এর আগে ইসকন মন্দির প্রাঙ্গণে রথযাত্রার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। ইসকন স্বামীবাগ আশ্রমের সাধারণ সম্পাদক সত্য রঞ্জন বাড়ৈর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে রথযাত্রার উদ্বোধন করেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্থানীয় এমপি কাজী ফিরোজ রশীদ। আরও বক্তব্য দেন মুকুল বোস, নির্মল কুমার চ্যাটার্জী, কৃষ্ণ কীর্ত্তন দাস, চারু চন্দ্র দাস ব্রহ্মচারী প্রমুখ।

এদিকে, রাজধানীর জয়কালী রোডের রামসীতা মন্দিরের জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা বিকেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। মন্দির প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হওয়া রথযাত্রা নগরীর বিভিন্ন সড়ক ঘুরে মন্দিরে এসে শেষ হয়। এর আগে রামসীতা মন্দির কমিটির সভাপতি গনেশ চন্দ্র ঘোষের সভাপতিত্বে ধর্মীয় আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন সারাহ বেগম কবরী, এটিএম শামসুজ্জামান, অরুন সরকার রানা, নিতাই চন্দ্র ঘোষ প্রমুখ।

পুরান ঢাকার শাঁখারীবাজার কমিটি আয়োজিত রথযাত্রাটি শাঁখারীবাজার থেকে শুরু হয়ে মাধব গৌড়ীয় মঠে গিয়ে শেষ হয়। জগন্নাথ জিউ ঠাকুর মন্দিরের রথযাত্রা তাঁতীবাজার থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে। এ ছাড়া বনগ্রাম রোডের রাধা মাধব জিও দেব বিগ্রহ মন্দির ও ঠাটারীবাজার শিবমন্দিরে রথযাত্রা উপলক্ষে ভোগ, কীর্তন, গীতা পাঠ, ধর্মীয় সঙ্গীত, প্রসাদ বিতরণ ও ধর্মীয় আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি জানান, ধামরাইয়ে দেশের সর্ববৃহৎ ও চারশ’ বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী রথযাত্রা উৎসব ও মাসব্যাপী মেলা গতকাল শুরু হয়েছে। স্থানীয় এমপি এমএ মালেক মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে ও কবুতর উড়িয়ে এই উৎসবের উদ্বোধন করেন। যশোমাধব মন্দির ও রথ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) জীবন কানাই দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সাইদুর রহমান, আবুল কালাম, মিনা মালেক, শফিক আনোয়ার গুলশান, রিজাউল হক, হাজী মাহতাব আলী, খাইরুল ইসলাম, আমিনুর রহমান, হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

এ ছাড়া খুলনা, বরিশাল, সিলেট, নারায়ণগঞ্জ, ফরিদপুর, মাগুরাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রথযাত্রা উৎসব শুরু হয়েছে বলে জেলা-উপজেলা প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.