১৮ই জুন, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:০২
রেলওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়

ভারতে প্রথমবারের মতো খুললো রেলওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়

বিশেষ প্রতিবেদকঃ ভারতে প্রথমবারের মতো খুললো রেলওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়। এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি নিয়ে বিভিন্ন বিভাগে কর্মকর্তার পদে যোগ দিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। রেলে উন্নতমানের আধুনিক প্রযুক্তি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে।

অথচ এই প্রযুক্তির ব্যবহারে কোনও রকম শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ নেয়ার ব্যবস্থা চালু হয়ে ওঠেনি। নেই সিলেবাসও। ফলে প্রযুক্তির ক্রমবিকাশের জ্ঞান সঞ্চয় করতে ছুটতে হচ্ছে বিদেশে। অত্যন্ত ব্যয়বহুলও সেই শিক্ষা।

অথচ ভারতে রেলের নিজস্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে গুজরাটের বরোদাতে। ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব ইন্ডিয়ান রেলওয়েতে ইউপিএসসি থেকে পাশ করে আসা অফিসারদের প্রশিক্ষণ হয় সেখানে। সেখানে তারা ফাউন্ডেশন কোর্স, ইন্ডাকশান কোর্স ও প্রফেশনাল কোর্সের প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকেন। সঙ্গে চলে ফিল্ডওয়ার্ক। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার কথা চিন্তা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০১৪ সালের বাজেটে এই বিশ্ববিদ্যালয় করার প্রকল্প নেয়া হয়।

বরোদার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রকে বিশ্ববিদ্যালয় করতে রেল তৈরি করে ম্যানেজমেন্ট কমিটি। এরপর ওই কমিটির তত্ত্বাধানে গঠিত হয় ন্যাশনাল রেল ট্রান্সপোর্ট ইউনিভার্সিটি। ইন্ডিয়ান স্কুল অব বিজনেস-এর ডিন অব স্ট্যাডি ড. প্রমোদ সিনহাকে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সিইওর দায়িত্ব দেয়া হয়। আগামী আগস্টেই শুরু হবে লেখাপড়া।

৮০টি সিট রয়েছে।বিবিও ও বিএসসি কোর্স দিয়ে শুরু হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়। উচ্চমাধ্যমিকে ৫৫ শতাংশ নম্বর পাওয়া শিক্ষার্থীরা এই কোর্সের আবেদন করতে পারবেন।

আগামী আগস্টে প্রথম কোর্সের জন্য সাড়ে তিন হাজার আবেদন এসেছে বলে জানা গিয়েছে। রেলে দেশে ৩০০টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রকে এই ন্যাশনাল রেল ট্রান্সপোর্ট ইউনিভাসির্টির আওতায় আনা হয়েছে।

তবে, এই কোর্স করতে কেমন খরচ হবে, তা এখনও জানানো হয়নি। পড়ুয়াদের থাকা-খাওয়া সংক্রান্ত কী ব্যবস্থা রাখা হয়েছে, সেটি নিয়েও ধোঁয়াশা রয়েছে। রেল সূত্রের খবর, বিশ্ববিদ্যালয় চালু হওয়ার বা ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার আগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিস্তারিত জানিয়ে দেয়া হবে।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.