১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৪৯
যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিরোধ চরমে

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে অন্য সদস্য দেশগুলোর বিরোধ চরমে

বিশেষ প্রতিবেদকঃ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে অন্য সদস্য দেশগুলোর বিরোধ কানাডায় শুরু হওয়া জি-৭ সম্মেলনে চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। ইইউ, কানাডা ও মেক্সিকো থেকে স্টিল ও অ্যালুমিনিয়াম আমদানির ওপর যুক্তরাষ্ট্রের শুল্ক আরোপ নিয়ে সম্মেলনের প্রথম দিন শুক্রবার দেশটির প্রতি ক্ষোভ জানিয়েছেন অন্য ছয় দেশের নেতারা। এমনকি বিশ্ব বাণিজ্য যুদ্ধের আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন তারা।

ইউরোপিয়ান কাউন্সিল প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাস্ক বলেছেন, ‘নিয়মভিত্তিক আন্তর্জাতিক আদেশ’ কে হুমকিতে ফেলে দেয়া হচ্ছে। যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, এই অবস্থা থেকে উত্তরণে তিনি ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে কাজ করতে চান। জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল বলেছেন, মিথ্যা ঐক্যের আশ্বাসের চেয়ে বিরোধের সমাধান করা জরুরি। সবকিছু ঠিক আছে বলার আগে এই বিষয়ে সততা অনেক দরকার।

যুক্তরাষ্ট্রের এই শুল্ক আরোপকে ‘অবৈধ’ বলে উল্লেখ করেছেন কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেছেন, সব দল ঐক্যমতে পৌঁছাবে বলে আমি আশাবাদী। এই বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমি অগ্রগতির বিষয়ে আশাবাদী। সম্মেলনের একপর্যায়ে জি-৭ থেকে বহিষ্কৃত রাশিয়াকে পুনরায় অন্তর্ভুক্ত করার কথা বলেন ট্রাম্প। তবে জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, অন্য সদস্যরা এই ধারণার বিরোধী।

এবারের সম্মেলনের নির্ধারিত বিষয়গুলো ছিল, ব্যাপক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, লিঙ্গ সমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন, বৈশ্বিক নিরাপত্তা, ভবিষ্যতের চাকরি, জলবায়ু পরিবর্তন ও সমুদ্র। সম্মেলন সূত্রে জানা গেছে, জলবায়ু পরিবর্তন, পরিবেশ এবং সম্ভবত লৈঙ্গিক সমতা বিষয়ক আলোচনায় অংশ নেবেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প। উল্লেখ্য, ট্রাম্পের পরবর্তী গন্তব্য সিঙ্গাপুর। সেখানে উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। বৈঠকে তারা একান্তে কথা বলবেন।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.