১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৪:২০
সর্বশেষ খবর
সাকিবের চেন্নাই

আজ ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে হায়দরাবাদ এবং সাকিবের চেন্নাই

বিশেষ প্রতিবেদকঃ  মুম্বাইয়ে আজ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং চেন্নাই সুপার কিংস ২০১৮ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে। ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় টি-টোয়েন্টি লিগের মৌসুমের শেষ ম্যাচকে কেন্দ্র করে এরইমধ্যে উত্তেজনায় ফুটছে ক্রিকেট দুনিয়া। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা ক্রিকেট প্রেমীদের চোখও আজ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে।

খেতাবি লড়াইয়ে যে দুই দল আজ মুখোমুখি হবে সেই দুই দলই এই আইপিএলের ধারাবাহিক দল। মহেন্দ্রে সিং ধোনির নেতৃত্বধীন দলটি এ পর্যন্ত মোট দুইবার শিরোপা নিজেদের করতে নিতে পেরেছে। অন্যদিকে ২০১৬ সালে একবার শিরোপার স্বাদ পায় টম মুডির শিষ্যরা। চলতি আসরে এখনও পর্যন্ত মোট তিন বার মুখোমুখি হয়েছে এই দুই দল। যার মধ্যে তিনটি বারই হারতে হয়েছে কেন উইলিয়ামসনের সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে।

তবে লিগের ম্যাচ বা কোয়ালিফায়ার ম্যাচ, সবই ভিন্ন ফাইনাল ম্যাচের থেকে। কারণ ফাইনালে কোনো অঙ্কই কাজ করে না। পুরোটাই অন্য লড়াই। যে দল আজ নিজেদের নার্ভের উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারবে এবং হাজার হাজার সমর্থকের সামনে মধ্যেও মাথা ঠাণ্ডা রেখে নিজেদের সেরাটা উজার করে দিতে পারবে সেই দলই জিতবে এই ফাইনাল।

২০১২ ও ২০১৪ সালে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে দুইবার শিরোপা জয় করে নিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। কমলা জার্সিতে প্রথমবারের মতো খেলতে নেমে চলতি মৌসুমে বাজিমাত করেন ৩১ বছর বয়সী এই তারকা।  ১৬ ম্যাচে ২১.৬০ গড়ে ২১৬ রান করেছেন বাংলাদেশের টেস্ট ও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। অন্যদিকে ১৪ উইকেটও তুলে নিয়েছেন বিশ্বের সেরা এই অলরাউন্ডার। এবার অপেক্ষা তৃতীয় শিরোপা জেতার।

গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচের আগে হায়দরাবাদকে চিন্তায় রাখছে গত তিনটি ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে তাদের পারফরম্যান্স। কারণ তিনটি লড়াইয়েই এই মৌসুমে এসআরএইচকে হারিয়েছে সিএসকে। কলকাতার বিপক্ষে ইডেন গার্ডেন্সে এলিমিনেটরে যে ভাবে জয় পেয়েছে অরেঞ্জ আর্মি, তাতে আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে সাকিব আল হাসান-রশিদ খানদের।

হায়দরাবাদ টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রের খবর, ফাইনাল ম্যাচে দলে দু’টি পরিবর্তন আনতে পারেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। গত ম্যাচে সুযোগ পাওয়া দীপক হুডা সেভাবে নজর কাড়তে পারেননি। তাঁর পরিবর্তে এই ম্যাচে প্রথম একাদশে ফিরতে পারেন মনিষ পান্ডে।

গত ম্যাচে ইডেনে সুযোগ পাওয়া তরুণ পেসার খালিল আহমেদের পরিবর্তে ফাইনাল ম্যাচে ফিরতে পারেন সন্দীপ শর্মা।  এসআরএইচ দলে একাধিক পরিবর্তন আনার কথা ভাবলেও, নিজেদের দলে পরিবর্তন আনতে নারাজ মহেন্দ্র সিং ধোনি।

চেন্নাই টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রে খবর, কোনোভাবেই উইনিং কম্বিনেশনে পরিবর্তন আনতে চান না এমএসডি। সেট দলকে ধরে রেখেই ফাইনালে নামতে চাইছেন তিনি। এই ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা দেয়া হতে পারে হরভজন সিংকে।  ফাইনালের মতো মেগা ম্যাচে হরভজনের দীর্ঘ অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চাইছেন মাহি।

ম্যাচের আগের দিন সংবাদিকদের ধোনি বলেন, এই বিষয়ে কোনো সংশয়ই নেই যে এই ধরনের ম্যাচে আগে অভিজ্ঞতার গুরুত্ব আরও বেড়ে যায়। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে তা কাজে আসে না। আমাদের দলের অন্যতম শক্তি ফিল্ডিং। যেখানেই আমরা খেলেছি সেখানেই অন্তত দু’জন ভালো ফিল্ডারের সার্ভিস দল পেয়েছে। এটা খুব প্রয়োজনীয়।

অন্যদিকে, হায়দরাবাদের হেড কোচ টম মুডি বলেন, সিএসকের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচে অন্তত ২০ রানে জেতা উচিত ছিল আমাদের। আমার মনে হয় ম্যাচের ৯০ শতাংশ ঠিকই করেছিল ছেলেরা কিন্তু বাকি ১০ শতাংশ ক্ষেত্রে সিএসকেকে শাবাসি দিতেই হয়, যে ভাবে ওরা ম্যাচটা ওরে জিতে নিয়েছে, তা এক কথায় অসামান্য।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.