২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:১৮
সর্বশেষ খবর
প্রতিনিয়ত বাড়ছে শিশুশ্রমিক

পাটকেলঘাটায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে শিশুশ্রমিক

এস.এম মফিদুল ইসলাম, পাটকেলঘাটাঃ পাটকেলঘাটায় প্রতিনিয়ত শিশুশ্রম বেড়েই চলেছে। জীবনের ঝুকি নিয়ে তারা ইলেকট্রনিক্র, হার্ডওয়্যার এমনকি হোল্ডিংয়ের কাজ করছে। এতে অনেকে পেটের দায়ে সংসার চালানোর নিমিত্তে কেউবা অভিভাবকের চাপে পড়ে স্কুলে না গিয়ে স্বল্প বেতনে ঝুকিপুর্ণ কাজ করেই চলেছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, পাটকেলঘাটা বাজার সহ আশপাশের বাজার গুলোতে শিশুশ্রমিক পর্যাপ্ত। এদের বয়স ৮ থেকে শুরু করে ততোর্দ্ধ। যেখানে তাদের স্কুলে বই খাতা নিয়ে লেখাপড়া করার কথা, তার পরিবর্তে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে ঝালাইয়ের কাজ। বৈদ্যুতিক কাজের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত হার্ডওয়্যার ও হোল্ডিংয়ের কাজ জীবনের ঝুকি নিয়ে তারা করেই চলেছে।

মাঝে মধ্যে দুর্ঘনায় কবলিত হওয়ার খবরও শোনা যায়। কিন্তু কে শোনে গরীবের কষ্টের কান্না। দিন দিন যেন এই শিশু শ্রমিকের সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে। এর কারণ হিসেবে অনেকে শিশুশ্রমিক তাদের দৈন্যতাকে দায়ি করছে। আবার অভিভাবগণ তাদের বাধ্য করার খবর যেন কম নই।

তাদের ভাষ্য বেশিরভাগ শিশুশ্রমিক দু’বেলা আহার জুটাতেই এ ঝুকিপুর্ণ কাজ করে চলেছে। অথচ তারা একটু সুযোগ পেলেই লেখাপড়া শিখতে পারতো। বছরের কয়েকটি বিশেষ দিনে শিশুদের নিয়ে আমরা আলোচনা সমালোচনা করতে শুরু করি। তাদের অধিকার আদায়ের জন্য এমনকি শিশুদের সুযোগ সুবিধা দিতে বদ্ধ পরিকর হয়।

দেখা যায়, দিন যেতে না যেতেই আবারও তা ভুলে যায়। অতীব দুঃখের বিষয় এদের কেউ খোজ রাখে না। আর এদেরকে বাদ দিয়ে আমরা শতভাগ শিক্ষা কার্যক্রম কখনও বলতে পারব না। এদের জীবনের গল্প কেউ শুনতে চাই না। গ্রীল, সাটার, ঝালাইয়ের কাজ, হোল্ডিংয়ের কাজ, সহ নানাবিধ কাজের সাথে এরা সম্পৃক্ত।

আবার বছরের প্রায় ৬ টি মাস ভাটার কাজের সাথে একশ্রেণীর শিশুশ্রমিক জড়িত থাকে। একাজে প্রতিনিয়ত যেন শিশুশ্রমিক বেড়েই চলেছে। তাই সচেতন মহলের দাবি সরকারের শিশুশ্রম বন্ধের কাজে নিযুক্ত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিগণ যদি এদের দিকে দৃষ্টি দেন তবে শিশুশ্রম অনেকাংশে কমে যাবে। হাতুর, ড্রিল মেশিন না উঠে কলম তাদের হাতে দেখা মিলবে।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.