যোগ

আসুন জেনে নেই আন্তর্জাতিক যোগ দিবস ও যোগের রহস্য

আন্তর্জাতিক যোগ দিবস

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দেওয়ার সময় ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করার প্রস্তাব দেন। সেই বছরই ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করেন। বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৯০টি দেশ একটি নির্দিষ্ট দিনকে যোগ দিবস হিসেবে পালন করার পক্ষে সমর্থন দেয়। যোগের প্রবক্তা ভগবান শিব বলেছেন যোগ ...

বিস্তারিত »

হৃদরোগ, কোষ্ঠকাঠিন্য ও শ্বাসকষ্ট রোগের কারণ

হৃদরোগ

আমরা ঘরে, বাইরের কোলাহলপূর্ণ দুষিত পরিবেশে সর্বদা বিভিন্ন ধরণের চাপের মধ্যে থাকি যা আমাদের মনে একটা চাপা উত্তেজনা সৃষ্টি করে। এই মানসিক উত্তেজনার কারণে আমাদের মনিপুর চক্রের সন্তুলন নষ্ট হয়ে যায়, ফলে এই চক্রস্থিত কষায় বৃত্তি খুব সহজেই উত্তেজিত হয়ে পড়ে। আর এই বৃত্তি তখন অনুকূল স্নায়ুতন্তুকে উত্তেজিত করে। এই উত্তেজিত স্নায়ুতন্তু এড্রিনাল গ্রন্থিকে সক্রিয় করে তোলে, ফলে এড্রিনালিন হর্মোন ...

বিস্তারিত »

বায়ু পান করেই বাঁচুন

বায়ু পান

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধূতঃ দেহে অক্সিজেনের প্রয়োজন সর্বাধিক। আমরা খাদ্যের মাধ্যমে যে পরিমাণ অক্সিজেন গ্রহণ করি তা দেহের আংশিক প্রয়োজন মাত্র মেটাতে পারে। এইজন্য আমাদের শ্বাস গ্রহণ করতে হয় অতিরিক্ত অক্সিজেন সংগ্রহের জন্য। অক্সিজেন ছাড়া আগুণ জ্বলতে পারে না। আমাদের জঠরাগ্নিকেও জ্বালিয়ে রাখে এই অক্সিজেন। শ্বাসের সাথে আমরা যে বিশুদ্ধ বায়ু গ্রহণ করি, ওই বায়ুতে শতকরা ২০ ভাগ থাকে অক্সিজেন। এই ...

বিস্তারিত »

ডিসি হিলে আর্ন্তজাতিক যোগ দিবস উদযাপন

চট্টগ্রামে আর্ন্তজাতিক যোগ দিবস

চট্টগ্রাম সংবাদদাতাঃ বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট চট্টগ্রাম শাখার সার্বিক তত্ত্বাবধানে আর্ন্তজাতিক যোগ দিবস উদযাপন পরিষদ এর আয়োজনে চট্টগ্রামের ডিসি হিলে আন্তজার্তিক যোগ দিবস-২০১৬ পালিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৩২ নং ওয়ার্ড কমিশনার শ্রী  জহরলাল হাজারী । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক এড. শ্রী তপন কান্তি দাশ, পরিচালক লং লাইফ ফাউন্ডেশন লায়ন ...

বিস্তারিত »

আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে যোগ প্রদর্শন ও আলোচনা সভা

বাংলাদেশ যোগ সোসাইটি

প্রাণতোষ তালুকদারঃ রাজধানী ঢাকার রবীন্দ্র সরোবর, ধানমন্ডি লেকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে যোগ প্রদর্শন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। রবীন্দ্র সরোবর, ঢাকার ধানমন্ডি লেকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদ্যাপন উপলক্ষ্যে যোগ প্রদর্শন ও আলোচনা সভা অদ্য ২০ জুন, ২০১৬ ইং তারিখ সকাল ৬.৩০ মিনিট থেকে ৮.৩০ মিনিটের মধ্যে শেষ হয়েছে। আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদ্যাপন উপলক্ষ্যে যোগ প্রদর্শন ও আলোচনা ...

বিস্তারিত »

কিভাবে খাবার না খেয়ে বাঁচা যায়

বায়ু পানে জীবন

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধূতঃ শ্বাসের দ্বারা আমরা যে বায়ু গ্রহণ করি তার মধ্যে দেহ গঠনের সব উপাদানই রয়েছে। আমরা যদি এই বায়ুকে দেহের কাজে, দেহের উপাদানে পরিণত করতে পারতাম, তাহলে আমাদের খাদ্য গ্রহণের কোন প্রয়োজনই হত না। আমরা তা পারি না বলেই দেহের বিভিন্ন উপাদান সংগ্রহের জন্য আমাদের বিভিন্ন শ্রেণীর খাদ্য গ্রহণ করতে হয়। চাল, গম, আলু, চিনি প্রভৃতি খাদ্যকে বলে ...

বিস্তারিত »

শারীরিক সুস্থ্য থাকার জন্যে প্রাণায়াম

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধূতঃ প্রাণবায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করার প্রক্রিয়াকে প্রাণায়াম বলা হয়। যোগশাস্ত্রে বহুবিধ প্রাণায়াম রয়েছে, তাদের মুখ্যতঃ দুটি  ধারায় ভাগ করা যায়- সাধনা সংক্রান্ত প্রাণায়াম ও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রাণায়াম। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রাণায়ামের প্রভাব  মুলতঃ শারীরিক-মানসিক স্তরে। যে ক্রিয়ার দ্বারা দেহের প্রাণশক্তি বৃদ্ধি পায়, যে ক্রিয়া অভ্যাসের দ্বারা জ্বরা, ব্যাধি ও অকাল মৃত্যু জয় করা যায়  তা হল স্বাস্থ্য সংক্রান্ত প্রাণায়াম। প্রাণায়াম ...

বিস্তারিত »

মানব জীবনের লক্ষ্য কি

মানব অস্তিত্ব ৩ স্তরে বিন্যস্ত- শারীরিক, মানসিক ও আত্মিক। শারীরিক স্তরে মানুষ সুখ ভোগ করে, মানসিক স্তরে শান্তি আর আত্মিক স্তরে আনন্দ লাভ করে। সুখঃ প্রতিটি জীবই সুখ চায়, প্রতিটি মানুষ সুখ চায়। কোন কিছুর অভাবই দুঃখ আর অভাবের পূর্ত্তিই হ’ল সুখ। মন যখন সংস্কার অনুযায়ী কাঙ্খিত বস্তু ইন্দ্রিয়ের মাধ্যমে ভোগ করে তখন তার স্নায়বিক অনুভূতিই তার কাছে সুখ। আর ...

বিস্তারিত »

খাদ্যাখাদ্যের বিচার, বর্জন – অন্য দিকটি

       জীবনযাত্রার একটা  প্রধান দিক হল খাদ্য গ্রহণ করা।  আর খাদ্য গ্রহণের বিপরীত হল অপ্রয়োজনীয় পদার্থ বর্জন করা। এরা  একে  অপরের পরিপূরক। এরা একটি পাখির দুই ডানার মত পরস্পরের উপর নির্ভরশীল।  একটি ডানা যদি ঠিক ভাবে কাজ  না করে, তাহলে যেমন ওড়ার প্রশ্নই ওঠে না ঠিক তেমনি  যেখানে  খাওয়া হয়েছে সেখানে বর্জন আছে। আবার  খাদ্যের ধরন ও পরিমাণ ...

বিস্তারিত »

খাদ্যাখাদ্যের বিচার- প্রোটিন শ্রুতি

       সাধারণ জনমত আর খাদ্য শিল্প ও গণমাধ্যমের প্রচারণা, 20 বছরের বেশি একটি পূর্ণবয়ষ্ক মানুষের দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় প্রোটিনের পরিমাণ শরীরের ওজনের কেজি প্রতি শুধুমাত্র ১ গ্রাম। অর্থাৎ যে লোকটির শরীরের ওজন ৬৫ কেজি, তার প্রতিদিন ৬৫ গ্রাম প্রোটিন প্রয়োজন। এর অতিরিক্ত প্রোটিন গ্রহণ করলে তা শরীর থেকে সেই দিনেই নিষ্কাসন করতে হবে।      বাস্তব সমস্যা হচ্ছে, এই ...

বিস্তারিত »

খাদ্যাখাদ্যের বিচার

খাদ্যের তিনটি বিভাগ  এই বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ড স্পন্দনাত্মক। সেখানে মুখ্যতঃ তিনটি শক্তি প্রবাহ রয়েছে- সত্ত্বগুণ (Sentient force), রজঃগুণ (Mutative force) ও তমোগুণ (Static force)।  যখন কোন বস্তুতে এই গুণগুলির কোন একটা প্রাধান্য লাভ করে তখন সেই বস্তুটি সেই গুণে গুণান্বিত হয়ে পড়ে।        সত্ত্বগুণঃ এই তিনটি গুণের প্রথম গুণটিকে বলা হয় সত্ত্বগুণ যা সুক্ষ্মত্বের দিকে নিয়ে যায়। এই গুণের প্রভাব মনে ...

বিস্তারিত »

খাদ্যাখাদ্যের বিচার

মাংসাশী জীব ও তৃণভোজী জীব       খাদ্য গ্রহণের দিক থেকে জীব জগৎ দুই ভাগে বিভক্ত। যেমন, বিড়াল, কুকুর,  বাঘ, সিংহ ইত্যাদি মাংসাশী জীব।  গোরু, ছাগল, মোষ, ঘোড়া, হাতী  ইত্যাদি তৃণভোজী জীব। এই মাংসাশী ও তৃণভোজী জীবের  শারীরিক পরিকাঠামো, জৈব রাসায়নিক সংরচনা ও হজম করার পদ্ধতির মধ্যে বিশেষ পার্থক্য পরিলক্ষিত হয়। যেমন,   মাংসাশী জীবঃ তৃণভোজী জীবঃ  ১। শিকার ধরে খাবার ...

বিস্তারিত »

আসনের শারীরবৃত্তীয় সুফল

আসনের শারীরবৃত্তীয় সুফল-2 রক্ত চলাচল বৃদ্ধি আসন কিংবা শ্রমসাধ্য ব্যায়াম অভ্যাস করলে মানব শরীরের কাঠামো সংক্রান্ত পেশিগুলি সঙ্কুচিত হয়। ধমনীতে চাপ বেড়ে হৃদ্‌পিণ্ডে রক্ত চলাচলের গতি দ্রুততর হয়ে ওঠে। পেশি সঙ্কোচনে ফলে হার্টে রক্ত চলাচলের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় ও হৃদ্‌পিণ্ড সঙ্কুচিত হয়ে হৃদ্‌স্পন্দনের মাত্রা বাড়িয়ে তোলে। তাই হৃদ্‌পিণ্ড আরও বেশী রক্ত পাম্প করতে থাকে। দ্রুততর স্পন্দন ও হৃদ্‌পিণ্ডের পেশির ক্ষিপ্রতর ...

বিস্তারিত »

আসনের শারীরবৃত্তীয় সুফল-১

আসনের শারীরবৃত্তীয় সুফল-১ *পেশীসমূহের ওপর আসনের প্রভাব ‘আসন’ –অর্থাৎ ‘আরামদায়ক দেহভঙ্গি’ – শব্দটা থেকেই বোঝা যায় অন্যান্য দৈহিক ব্যায়ামের সাথে যোগ আসনের  কোথায় প্রভেদ। সৌন্দর্য, শক্তিলাভ ও শরীরচর্চার জন্যে যেসব শারীরিক ব্যায়াম করা হয় তাতে পেশীগুলিকে সক্রিয় করে শরীরের উন্নতি করা যায়। সেসব ব্যায়ামে অঙ্গের দ্রুত নড়াচড়া ও ক্রমাগত তীব্র প্রসারণ ও সঙ্কোচনের ওপর জোর দেওয়া হয়। দ্রুততার সঙ্গে বারবার ...

বিস্তারিত »

বারাণসী কোথায়?

বারাণসী কোথায়? -শ্রীশ্রী আনন্দমূর্ত্তিজী ‘বারাণসী’ কথাটার অর্থ কী ? ইংরেজী  ও সংস্কৃত উভয় ভাষাতেই ‘বার’ (bar) শব্দের অর্থ হ’ল রোধ করা (to check)। বার্‌ + অনট্‌ = বারণ, মানে হচ্ছে মানা করা বা নিষেধ করা। বারণ করা মানে নেতিবাচক আদেশ করা। নি- বার্‌ + অনট্‌= নিবারণ । ‘অনস্‌’ মানে হচ্ছে জন্ম। সুতরাং বার্‌ + অনস্‌ মিলে ‘বারাণস্‌’। সংস্কৃত ভাষায় ‘বারাণস্‌’ স্ত্রীলিঙ্গে ...

বিস্তারিত »

যোগাসন

যোগাসন *যে অবস্থায় সুখে থাকা যায় তার নাম আসন-‘স্থিরসুখমাসনম্‌’ । আসন  এক প্রকার ব্যায়াম। এর নিয়মিত অভ্যাসের দ্বারা শরীর সুস্থ্য ও কর্মঠ থাকে আর বহু রোগ নিরাময় হয়। *কোন কাজে সফলতার জন্য মনের একাগ্রতা প্রয়োজন। শরীর সুস্থ্য না  থাকলে মনে একাগ্রতা আসে  না। আবার মন বিক্ষিপ্ত হলে কোন কাজে বা সাধনায় সাফল্য লাভ হয় না। তাই কোন কাজে বা  সাধনায় ...

বিস্তারিত »

যোগ অভ্যাস

যোগ অভ্যাস নিয়মিত যোগ অভ্যাস করে সুস্থ্য থাকুন, শান্তিতে থাকুন, আনন্দ লাভ করুন।        মানব অস্তিত্ব ত্রিস্তরে বিন্যস্ত- শরীর, মন ও আত্মা। তাই জীবনের যথার্থ উন্নতির জন্যে তথা জীবনকে যথার্থ আনন্দময় করে গড়ে তুলতে হলে দৈহিক, মানসিক ও আত্মিক- তিনেরই উন্নতি একান্ত প্রয়োজন।  জীবনের এই ত্রিস্তরীয় উন্নতি সম্পর্কে আমাদের যথার্থভাবে সচেতন হতে হবে। সেজন্যেই বিংশ শতাব্দীর মহান দার্শনিক ও  যোগেশ্বর ...

বিস্তারিত »

যোগের প্রয়োজনীয়তা

যোগের প্রয়োজনীয়তা      মানব অস্তিত্ব ত্রিস্তরে বিন্যস্ত- শরীর, মন ও আত্মা। তাই জীবনের যথার্থ উন্নতির জন্যে তথা জীবনকে যথার্থ আনন্দময় করে গড়ে তুলতে হলে দৈহিক, মানসিক ও আত্মিক- তিনেরই উন্নতি একান্ত প্রয়োজন।  জীবনের এই ত্রিস্তরীয় উন্নতি সম্পর্কে আমাদের যথার্থভাবে সচেতন হতে হবে। সেজন্যেই বিংশ শতাব্দীর মহান দার্শনিক ও  যোগেশ্বর শ্রীশ্রী আনন্দমূর্ত্তিজী বলেছেন, “We should be physically fit, mentally strong ...

বিস্তারিত »

আদর্শ জীবন

আদর্শ জীবন -শ্রীশ্রী আনন্দমূর্ত্তিজী “যচ্ছেদ্‌ বাঙ্‌মনসী প্রাজ্ঞস্তদ্‌ যচ্ছেজ্‌ জ্ঞান মাত্মনি। জ্ঞানমাত্মনি মহতি নিযচ্ছেৎ তদ্‌ যচ্ছেচ্ছান্ত আত্মনি”।। সাধকের জীবন কেমন হওয়া উচিত তা নিয়ে এর আগেও বলেছি। বলেছি যে একজন যথার্থ সাধক এই আপেক্ষিক জগতের কর্ত্তব্যগুলোও যথাযথ ভাবে করবে, আবার আধ্যাত্মিক জগতের কর্ত্তব্যগুলোও ঠিক ঠিক করতে থাকবে। আর এই উভয় জগতের মধ্যে থাকবে একটা সুসামঞ্জস্য (happy blending)। বহির্জগতে থাকবে একটা সুসন্তুলিত ...

বিস্তারিত »

মানসিক চাপের কারন

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধুতঃ ডাক্তারেরা আজকাল জানতে পেরেছেন যে দৈনন্দিন জীবনের ছোট ছোট চাপগুলি, ছোট ছোট সমস্যা আসলে জীবনের অনেক বড় গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা থেকেও আমাদের বেশী অসুস্থ করে তোলে। উদাহরণ স্বরূপ বলা যেতে পারে, ক্রমাগত অসুস্থ আত্মীয়, অফিসের সহকর্মীদের দুর্ব্যবহার, দেরীতে বাস বা ট্রেন আসা বা ট্রাফিক জ্যাম ইত্যাদি সাধারণ চাপগুলি স্বাস্থের পক্ষে তেমনই মারাত্মক ক্ষতিকর হতে পারে, যেমন হতে পারে ...

বিস্তারিত »

মানসিক চাপ থেকে মুক্ত হওয়ার উপায়

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধূতঃ এই মনিপুর চক্রের সঙ্গেই এড্রিনাল (Adrenal) গ্রন্থি ও প্রোষ্টেট(Prostrate) গ্রন্থি সম্পর্কিত। কিডনীর উপরে আর অগ্নাশয়ের(Pancreas) ঠিক পাশেই এড্রিনাল গ্রন্থি। হঠাৎ কোন বিপদের ফলে চাপের (stress) মুখে পড়ে শরীরে কোন তীব্র উত্তেজনার সৃষ্টি হলে এই গ্রন্থি থেকে নিঃসৃত হর্মোন তাকে নিয়ন্ত্রণ করে। বিপদের সময় এই গ্রন্থি থেকে এড্রিনালিন (Adrenaline) হর্মোন নিঃসৃত হয়ে সমস্ত শরীরকে প্রভাবিত ও প্ররোচিত করে ...

বিস্তারিত »

কেন মানুষ অস্থিরতায় ভোগে

আচার্য ব্রজেশ্বরানন্দ অবধূতঃ  মনিপুর চক্রে রয়েছে ১০টি বৃত্তি। এই চক্র দেহের তেজস্তত্ত্বকে নিয়ন্ত্রণ করে। আর এখানেই সবচেয়ে আবেগময় বৃত্তিগুলির অবস্থান। এই চক্রে বৃত্তিগুলি হ’ল,- ১।মোহ (Infatuation)– কারোর প্রতি বা কোন কিছুর প্রতি অন্ধ আকর্ষণ। অধিকাংশ মানুষই হয় তাদের প্রিয়জন বা পোষা প্রিয় জন্তু বা বাড়ী, গাড়ী ইত্যাদি কোন না কোন কিছু নিয়েই সব সময় ব্যস্ত আছে। কোন কিছুর সাথে এই ...

বিস্তারিত »

মানুষের মস্তিস্ক কিভাবে কাজ করে

স্নায়ুকোষ ও স্নায়ুতন্তুঃ জীবদেহে রয়েছে অসংখ্য স্নায়ুকোষ ও স্নায়ুতন্তু। মন এই স্নায়ুকোষ-স্নায়ুতন্তুর মাধ্যমে কাজ করে।এই স্নায়ুগুলির মূল নিয়ন্ত্রক মস্তিষ্ক।মস্তিষ্ক এগুলি নিয়ন্ত্রণ করে কতকগুলি স্নায়ুকেন্দ্রের মাধ্যমে। মূলাধার চক্র, স্বাধিষ্ঠান চক্র, মনিপুর চক্র, অনাহত চক্র ও বিশুদ্ধ চক্র এইগুলি এক একটা স্নায়ুকেন্দ্র। অন্তঃক্ষরা গ্রন্থিও বৃত্তিঃ আমাদের শরীরে রয়েছে কতকগুলি অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি। যেমন- পিনিয়াল, পিটুইটারী, থাইরয়েড, প্যারা-থাইরয়েড, থাইমাস, এড্রিনাল, গোনাড্‌স ইত্যাদি। এই গ্রন্থিগুলি ...

বিস্তারিত »

মানব দেহের গঠন

চক্র, গ্রন্থি ও বৃত্তিঃ মানবদেহ পাঞ্চভৌতিক সত্তা- ক্ষিতি, অপ, তেজ, মরুৎ,ব্যোম এই পঞ্চ তত্ত্বে তৈরী। এই মানব দেহকে অন্নময় কোষও বলা হয়।জীবদেহ একটা জৈবিক যন্ত্র। আমাদের মন এই জৈবিক যন্ত্রের মাধ্যমে কাজ করে। এই জৈবিক যন্ত্রে রয়েছে স্নায়ুকোষ-স্নায়ুতন্তু, চক্র, অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি,দশ ইন্দ্রিয়। আবার খাদ্য, জল, আলো, বায়ু ইত্যাদি দ্বারা এই শরীর পুষ্ট হয়। প্রাণশক্তি এই শরীররূপী জৈবিক যন্ত্রটাকে সচল রাখে। ...

বিস্তারিত »

মানব জীবনের লক্ষ্য

মানব অস্তিত্ব ৩ স্তরে বিন্যস্ত- শারীরিক, মানসিক ও আত্মিক। শারীরিক স্তরে মানুষ সুখ ভোগ করে, মানসিক স্তরে শান্তি আর আত্মিক স্তরে আনন্দ লাভ করে। সুখঃ প্রতিটি জীবই সুখ চায়, প্রতিটি মানুষ সুখ চায়। কোন কিছুর অভাবই দুঃখ আর অভাবের পূর্ত্তিই হ’ল সুখ। মন যখন সংস্কার অনুযায়ী কাঙ্খিত বস্তু ইন্দ্রিয়ের মাধ্যমে ভোগ করে তখন তার স্নায়বিক অনুভূতিই তার কাছে সুখ। আর ...

বিস্তারিত »